১০ মাঘ  ১৪২৭  রবিবার ২৪ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

এবার ইলেক্টোরাল কলেজের দোহাই, হোয়াইট হাউস ছাড়তে নারাজ ট্রাম্প

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: November 27, 2020 9:29 am|    Updated: November 27, 2020 9:29 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রেসিডেন্সিয়াল নির্বাচনে পরাজিত হলেও প্রেসিডেন্ট পদ ছাড়তে নারাজ ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump)। বৃহস্পতিবার বিদায়ী প্রেসিডেন্ট সাফ জানিয়েছেন, ইলেক্টোরাল কলেজে জো বিডেনকে জয়ী ঘোষণা করলে তবেই তিনি হোয়াইট হাউস ছাড়বেন।

[আরও পড়ুন: রাশিয়ার সঙ্গে আঁতাঁত, প্রাক্তন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা ফ্লিনকে ক্ষমা করলেন ট্রাম্প]

সদ্য সমাপ্ত নির্বাচনে ভরাডুবির পর থেকেই গোটা প্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন রিপাবলিকান প্রার্থী তথা বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বিডেনকে জেতাতে ভোটে কারচুপি করা হয়েছে বলে অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি। এমনকী সমর্থকদের কাছে ফলাফল মেনে না নেওয়ার আহ্বান ও জানিয়েছেন ট্রাম্প। কিন্তু, পেনসিলভেনিয়া, জর্জিয়া, মিশিগান, উইসকনসিনয়ের মতো সুইং স্টেটগুলিতে ধাক্কা খেয়ে ও আইনি লড়াইয়ে কোনও পথ খোলা না দেখতে পেয়ে ব্যাকফুটে ট্রাম্প শিবির। এছাড়া, চিন-সহ বিশ্বের দেশগুলি ইতিমধ্যেই বিডেনকে অভিনন্দন জানিয়েছে। তাই সুর কিছুটা নরম করলেও এবার ইলেক্টোরাল কলেজের দোহাই দিচ্ছেন ট্রাম্প। এদিন নির্বাচনে ভরাডুবির পর প্রথম সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দেন ট্রাম্প। সেখানে প্রশ্ন ওঠে, ইলেক্টোরাল কলেজ জো বিডেনকে জয়ী ঘোষণা করলে ট্রাম্প হোয়াইট হাউস ছাড়বেন কি না? উত্তরে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট বলেন, “আমি অবশ্যই হোয়াইট হাউস ছাড়ব। আপনারা তা জানেন। তবে আমার মনে হয় জানুয়ারির ২০ তারিখ পর্যন্ত অনেক কিছু ঘটবে। আমরা তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলির মতো হয়ে গিয়েছি। নির্বাচনে আমরা এমন কম্পিউটার ব্যবহার করছি যেগুলি হ্যাক করা যায়।”

এদিন সুর নরম করলেও ট্রাম্প দাবি করেন বিডেনকে জয়ী ঘোষণা করলে বড় ভুল করবে ইলেক্টোরাল কলেজ। তিনি বলেন, “এই নির্বাচনে বিস্তর কারচুপি হয়েছে। আমি অনেক বেশি ভোটে জয়ী হতাম। এবং আমি অনেক বেশি ভোট পেয়েছি। কিন্তু সেই খবর এখনও প্রকাশ করা হয়নি।” উল্লেখ্য, আমেরিকায় জনগণ পরোক্ষ নির্বাচন পদ্ধতিতে ইলেক্টরদের ভোট দেয়। ৫৩৮টি ইলেক্টরের মধ্যে যিনি বেশি ভোট পান তিনিই প্রেসিডেন্ট পদে বসেন। এক্ষেত্রে ভারতের মতো কোনও দলের কেন্দ্রভিত্তিক ভোট হয়না। অর্থাৎ, ইলেক্টোরাল কলেজে যাঁকে জয়ী ঘোষণা করবে তিনিই হবেন পরবর্তী মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

[আরও পড়ুন: রাশিয়ার সঙ্গে আঁতাঁত, প্রাক্তন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা ফ্লিনকে ক্ষমা করলেন ট্রাম্প]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement