BREAKING NEWS

২৩ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  শনিবার ৬ জুন ২০২০ 

Advertisement

প্রকাশ্যে ‘যুদ্ধের কবর’, খোঁজ মিলল ডুবে যাওয়া জাপানি রণতরী আকাগি’র

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: October 22, 2019 9:57 am|    Updated: October 22, 2019 4:34 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মিডওয়ের যুদ্ধ থেকেই গ্রহণ গ্রাস করেছিল ‘উদিত সূর্যের দেশ’ জাপানকে। ওই রক্তক্ষয়ী লড়াইয়ে কার্যত দুরমুশ হয়ে যায় ‘অপরাজেয়’ জাপানি নৌসেনা। পার্ল হারবার আক্রমণের বদলা এই যুদ্ধেই নিয়েছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। ওই যুদ্ধে তলিয়ে গিয়েছিল কাগা, আকাগি, হিরুয়ু এবং সরিয়ু নামে চারটি জাপানি বিমানবাহী যুদ্ধজাহাজ। গত সপ্তাহে সমুদ্রের তলদেশে কাগা নামে যুদ্ধজাহাজটির খোঁজ পাওয়া গিয়েছিল। রবিবার সেখানে তলিয়ে যাওয়া দ্বিতীয় জাপানি এয়ারক্র্যাফ্ট ক্যারিয়ার অকাগির সন্ধান পেলেন গবেষকরা।

মিডওয়ের যুদ্ধ নিয়ে কয়েক দশক থেকে গবেষণা চালাচ্ছেন গবেষক ও ইতিহাসবিদরা। তবে উত্তরের চাইতে বেশি প্রশ্নই মিলেছে। তবে কাগা ও আকাগির সন্ধান মেলায় বহু প্রশ্নের উত্তর মিলতে পারে বলেই মনে করা হচ্ছে। রবিবার সমুদ্র গবেষকদের পাঠানো হাই ফ্রিকোয়েন্সি সোনার ইমেজ পরীক্ষা করে দেখেন সংস্থার আন্ডারসি অপারেশন্সের ডিরেক্টর রব ক্র্যাফ্ট এবং নৌবহরের ইতিহাস ও হেরিটেজ কমান্ডের ঐতিহাসিক ফ্রাঙ্ক থম্পসন। যুদ্ধজাহাজটির আকার এবং অবস্থান খতিয়ে দেখে সেটিকে জাপানি এয়ারক্র্যাফ্ট ক্যারিয়ার আকাগি বলেই মনে করছেন তাঁরা। পার্ল হারবার থেকে ১,৩০০ মাইল দূরে প্রায় ১৮ হাজার ফুট জলের নীচে যুদ্ধজাহাজটির সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। একাজে একটি অটোনমাস আন্ডারওয়াটার ভেহিকেল (এইউভি) বা যন্ত্রচালিত খুদে সাবমেরিন ব্যবহার করা হয়েছে।

ইতিহাসবিদ ফ্রাঙ্ক থম্পসন জানিয়েছেন, ‘মিডওয়ে সম্পর্কে আমরা পড়েছি, জানি সেখানে কী হয়েছিল। কিন্তু যখন সমুদ্রের তলায় এই ধ্বংসাবশেষ দেখতে পাবেন, তখন বুঝতে পারবেন যুদ্ধে কী মূল্য দিতে হয়।’ এই ধরনের ধ্বংসাবশেষকে ‘যুদ্ধের কবর’ বলেও বর্ণনা করেছেন তিনি। মিডওয়ের যুদ্ধে তলিয়ে যাওয়া পাঁচটি জাপানি এবং দু’টি মার্কিন যুদ্ধজাহাজের বাকিগুলির সন্ধান মেলেনি। এই অনুসন্ধান অভিযানের উদ্যোগ নিয়েছিলেন প্রয়াত মার্কিন ধনকুবের তথা মাইক্রোসফটের সহ প্রতিষ্ঠাতা পল অ্যালান। তাঁর উদ্যোগে সমুদ্রে ঘরে তলিয়ে যাওয়া যুদ্ধজাহাজগুলি চিহ্নিত করছেন গবেষকরা। একাজে মার্কিন নৌবাহিনী এবং অন্যান্য সরকারি সাহায্য পাচ্ছেন। এখনও পর্যন্ত এরকম ৩০টি যুদ্ধজাহাজ খুঁজে পেয়েছেন তাঁরা।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে অক্ষ শক্তিতে (নাৎসি জার্মানি ও ইটালি) শামিল হয় জাপান। ইউরোপের আদলেই এশিয়া মহাদেশে সাম্রাজ্য বিস্তারের লড়াই শুরু করে সম্রাট হিরোহিতোর দেশ। ফলে প্রশান্ত মহাসাগরের দখল নিতে ঝাঁপায় টোকিয়ো। আর সেখানেই সংঘাত বন্ধে আমেরিকার সঙ্গে। প্রথমে পার্ল হারবারে মার্কিন নৌবাহিনীর উপর ভয়াবহ হামলা চালিয়েছে জাপানিরা। ৫ মাস পর ফের জলপথে হামলার ছক কষেছিল জাপান। কিন্তু, তাদের গোপন বার্তা জানতে পেরে যান মার্কিন গোয়েন্দারা। ১৯৪২ সালের ৪ জুন জাপানিদের অবাক করে তাদের উপর হামলা করে আমেরিকা। উত্তর-পশ্চিম হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জের মিডওয়ে অ্যাটোলের (তৎকালীন মার্কিন সামরিক ঘাঁটি) কাছে হওয়া রক্তক্ষয়ী এই যুদ্ধ ইতিহাসে মিডওয়ের যুদ্ধ নামে পরিচিত। মারা গিয়েছিলেন কমপক্ষে ২,০০০ জাপানি এবং ৩০০ মার্কিন সেনা।

[আরও পড়ুন: ব্রেক্সিট বিপাকে নাজেহাল জনসন, আরজি বিবেচনা করার আশ্বাস দিল ইইউ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement