BREAKING NEWS

৮ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২২ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

এবার নিজের ঘরেই বেআব্রু ইমরান, পুলওয়ামা নিয়ে তোপ জারদারির  

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: February 21, 2019 11:28 am|    Updated: February 21, 2019 2:27 pm

Zardari slams Imran Khan on Pulwama

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলা নিয়ে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে আঙুল তুলেছে ভারত। এবার খোদ পাকিস্তানের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি আসিফ আলি জারদারির সমলোচনার মুখে পড়েছেন সে দেশের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। চাঁচাছোলা ভাষায় জারদারির তোপ, ইমরান অপরিণত, অর্বাচীন। 

[ইমরানের পথে না হেঁটে পুলওয়ামায় জঙ্গি হানার নিন্দা পাক যুব সমাজের]

সদ্য ভারতের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে ইমরান অভিযোগ জানিয়েছেন, প্রমাণ ছাড়াই পাকিস্তানকে কাঠগড়ায় দাঁড় করাচ্ছে ভারত।হামলা হলে কড়া জবাব দেবে পাকিস্তান। এই প্রতিক্রিয়া নিয়ে মুখ খুলেছেন জারদারি। তিনি বলেন, “ইমরান অপরিণত। কোন পরিস্থিতির মোকাবিলা কীভাবে করতে হয়, তা জানেন না ইমরান।” বুধবার একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জারদারি বলেন, আন্তর্জাতিক বিভিন্ন ইস্যু সামলানোর মতো অভিজ্ঞতা ইমরানের নেই। ২৬/১১ মুম্বই হামলার প্রসঙ্গ টেনে জারদারি বলেন, “আমার সময় মুম্বইয়ে হামলা হয়েছিল। তখন আমি আপসের মধ্যে দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেছিলাম। কিন্তু এখন ইমরানকে দেখে মনে হচ্ছে তিনি অর্বাচীন। তিনি জানেন না কীভাবে এধরনের পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে হয়। যে কারণে পরিস্থিতি জটিল হয়ে উঠছে।” রজনীতির ময়দানে এমনিতেই জরদারির ‘পাকিস্তান পিপলস পার্টি’-র সঙ্গে লড়াই রয়েছে ইমরানের ‘তেহরিক-ই-ইনসাফ’ পার্টির। জারদারি রাষ্ট্রপতি থাকাকালীন তিনিই পাকিস্তানের সমস্যার কারণ বলে সুর চড়িয়েছিলেন ইমরান। বিশেষজ্ঞদের মতে এবার পালটা দিয়েছেন জারদারি।                      

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় জইশ জঙ্গিদের হানায় শহিদ হয়েছেন ৪৯ জন সিআরপিএফ জওয়ান৷ এই ঘটনার পাঁচদিন পর মুখ খোলেন পাক প্রধানমন্ত্রী৷ নিজেদের দোষ ঢাকতে একাধিক সাফাই গেয়েছেন ইমরান৷ তাঁর বক্তব্য, “একটা স্থিতিশীল অবস্থার দিকে দু’দেশের সম্পর্ককে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে পাকিস্তান৷ আমার নিজেরাই বারবার নাশকতার শিকার হচ্ছি৷ তবে কেন আমরা এই কাজ করব?” এই ভয়াবহ জঙ্গি হামলার পর থেকেই ইমরান সরকারকে কূটনৈতিক ভাবে যথেষ্ট চাপে রেখেছে নয়াদিল্লি৷ সূত্রের খবর, ইসলামাবাদের সঙ্গে সবরকমের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে কেন্দ্র৷ যার প্রথম ধাপে, পাকিস্তানের থেকে কেড়ে নেওয়া হয়েছে ‘মোস্ট ফেভারড নেশনের’ তকমা৷ এবং পাকিস্তান থেকে আমদানি করা সমস্ত পণ্যের শুল্ক বাড়িয়ে ২০০ শতাংশ করে দেওয়া হয়েছে৷ এমনকী, পাকিস্তানকে একঘরে করতে বিশ্বের শক্তিধর রাষ্ট্রগুলির সঙ্গেও কথাবার্তা শুরু করেছে নয়াদিল্লি৷

[শুরু ঠান্ডা লড়াই! আমেরিকাকে মিসাইল হামলার হুমকি রাশিয়ার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে