১৪  আষাঢ়  ১৪২৯  বুধবার ২৯ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

রুশ সেনার গোলার বলি ৩ মাসের শিশু! তীব্র ক্ষোভে ফুঁসে উঠে গালিগালাজ জেলেনস্কির

Published by: Biswadip Dey |    Posted: April 24, 2022 10:35 am|    Updated: April 24, 2022 10:35 am

Zelenskyy tears into Russia as missile strikes kill 3-month-old in Ukraine। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যুদ্ধের (Russia-Ukraine War) প্রায় দু’মাস কেটে গেলেও কিয়েভ দখলে ব্যর্থ রাশিয়ার সেনাবাহিনী। আর এতেই যেন আরও ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছেন রুশ (Russia) প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন (Vladimir Putin)। খারকভ ও ডোনেৎস্কে চলছে লাগাতার অগ্নিবৃষ্টি। এর মধ্যেই কৃষ্ণসাগরের বন্দর শহর ওডেসায় রুশ গোলায় মৃত্যু হল ৮ জনের। মৃতদের মধ্যে রয়েছে একটি তিন মাসের শিশুও। এই ঘটনায় রুশ সেনার প্রতি ক্ষোভ উগরে দিয়ে তীব্র গালিগালাজ করতে দেখা গিয়েছে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কিকে।

ইউক্রেনের সংবাদমাধ্যমের দাবি, দু’টি রুশ ক্ষেপণাস্ত্র এদিন আছড়ে পড়ে ওডেসার দু’টি বাড়িতে। আর তাতেই ৮ জনের মৃত্যু হয়। আহত হয়েছেন ১৮ জন। রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, একটি লজিস্টিক্স টার্মিনাল ধ্বংস করতেই ওই হামলা চালিয়েছিল রুশ সেনা। এরপরই কিয়েভে এক সাংবাদিক সম্মেলনে জেলেনস্কি ক্ষোভ উগরে দেন রুশ সেনার বিরুদ্ধে। তাঁকে রীতিমতো ছাপার অক্ষরে প্রকাশের অযোগ্য গালাগালি দিতে দেখা যায়।

[আরও পড়ুন: আমজনতার হেঁশেলে আগুন, আরও বাড়তে চলেছে ভোজ্য তেলের দাম!]

এদিকে শনিবারই যুদ্ধ থামাতে পুতিনের সঙ্গে বৈঠকে বসার ইচ্ছাও প্রকাশ করতে দেখা গিয়েছে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টকে। তিনি বলেন, ”আমি মনে করি যুদ্ধ যে শুরু করেছে, শেষ সেই করবে।” পুতিনের সঙ্গে দেখা করতে তিনি যে ‘ভীত’ নন, তাও জানিয়েছেন জেলেনস্কি। তিনি মনে করিয়ে দিয়েছেন, প্রথম থেকেই পুতিনের সঙ্গে একান্ত বৈঠকে বসতে চেয়েছিলেন তিনি।

তাঁর কথায়, ”আমি ওঁর সঙ্গে বৈঠকে বসতে চাই এই সংঘর্ষটিকে কূটনৈতিক স্তরে মিটিয়ে নিতে। আমাদের অংশীদারদের উপরে আমাদের পূর্ণ আস্থা রয়েছে। কিন্তু রাশিয়ার প্রতি কোনও বিশ্বাস নেই।”

এই পরিস্থিতিতে রবিবার মার্কিন স্বরাষ্ট্র সচিব অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন কিয়েভে যেতে পারেন বলে শোনা যাচ্ছে। এদিনই তিন মাস পূর্ণ করল রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ। এই পরিস্থিতিতে ব্লিঙ্কেনের সঙ্গে মার্কিন প্রতিরক্ষা সচিব লয়েড অস্টিনেরও আসার কথা ইউক্রেনে। এখনও পর্যন্ত মার্কিন বিদেশ দপ্তরের তরফে এই নিয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া দেওয়া হয়নি। যদি সত্যিই মার্কিন প্রতিনিধিরা এখানে আসেন, তাহলে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পরে এটাই হবে সেদেশে প্রথম মার্কিন কূটনীতিবিদদের সফর।

[আরও পড়ুন: জম্মুতে মোদির সভাস্থলের ১২ কিলোমিটার দূরে বিস্ফোরণ, নিরাপত্তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে