৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ২৬ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘এবার ন্যাটো ভূখণ্ডে আছড়ে পড়বে রুশ মিসাইল’, ‘নো ফ্লাই জোনে’র দাবিতে কাতর আরজি জেলেনস্কির

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: March 14, 2022 9:23 am|    Updated: March 14, 2022 9:23 am

Zelenskyy urges NATO to impose no-fly zone over Ukraine | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ডেভিড বনাম গোলিয়াথের লড়াইয়ে নজর গোটা বিশ্বের। রুশ বোমাবর্ষণে কার্যত ধ্বংসস্তূপ ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ-সহ বেশ কয়েকটি শহর। বিদেশি অস্ত্রে প্রবল প্রতিরোধ গড়ে তুললেও ক্রমে কোণঠাসা হয়ে পড়ছে ইউক্রেনীয় বাহিনী। কিন্তু কিয়েভের শত আর্তি সত্বেও সরাসরি যুদ্ধে জড়াতে বা সেনা পাঠাতে নারাজ আমেরিকা ও ন্যাটো। এহেন পরিস্থিতিতে ন্যাটো গোষ্ঠীর কাছে আবারও ‘নো ফ্লাই জোনে’র আরজি জানালেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

[আরও পড়ুন: ইউক্রেনে নিহত ‘দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস’-এর প্রাক্তন সাংবাদিক, জখম আরও এক সংবাদকর্মী]

সোমবার ফের ভারচুয়ালি বিশ্বের উদ্দেশে বার্তা দেন কৌতূকাভিনেতা থেকে নায়ক হয়ে ওঠা জেলেনস্কি। প্রায় ১৯ দিন ধরে রুশ আগ্রাসন ঠেকিয়ে গেলেও পরিস্থিতি যে ক্রমে হাতের বাইরে চলে যাচ্ছে সেই ইঙ্গিত ছিল অসহায় ওই রাষ্ট্রনায়কের গলায়। এদিন জেলেনস্কি বলেন, “আমি আবারও বলছি, যদি ইউক্রেনের আকাশপথ বন্ধ না করা হয় তাহলে ন্যাটো ভূখণ্ডে রুশ মিসাইল আছড়ে পড়া সময়ের অপেক্ষামাত্র। ন্যাটোর নাগরিকদের বাড়িতে বোমা পড়বে।” ন্যাটোর বিরুদ্ধে ইঙ্গিতে ক্ষোভ উগরে তিনি আরও বলেন, “আমি আগেই ন্যাটোকে সতর্ক করেছিলাম যে আগেভাগেই নিষেধাজ্ঞা জারি না করলে ইউক্রেনে হামলা চালাবে রাশিয়া (Russia)। নর্ড স্ট্রিম ২ পাইপ লাইনটিকে অস্ত্রের মতো ব্যবহার করবে রাশিয়া।” বলে রাখা ভাল, নর্ড স্ট্রিম পাইপ লাইনের মাধ্যমে ইউরোপে গ্যাস জোগান দেয় রাশিয়া। কয়েকদিন আগেও গ্যাসের জোগান বন্ধ করার হুমকি দিয়েছে মস্কো।

উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেও ন্যাটো জোটের কাছে ইউক্রেনের আকাশকে ‘নো ফ্লাই জোন’ ঘোষণা করার আবেদন জানিয়েছিলেন জেলেনস্কি (Volodymyr Zelenskyy)। তবে সেই আবেদন খারিজ করে দেয় ন্যাটো। এহেন সিদ্ধান্তের সপক্ষে ন্যাটো জোটের যুক্তি, ইউক্রেনের আকাশে ‘নো ফ্লাই জোন’ ঘোষণা করলে রাশিয়ার সঙ্গে পরমাণু যুদ্ধের সম্ভাবনা বেড়ে যাবে। তারপরই সেবার ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন জেলনস্কি। তিনি সাফ বলেছিলেন, ‘আজ থেকে সব মৃত্যুর দায় ন্যাটোর।” বলে রাখা ভাল, ইউক্রেনের আকাশে নো ফ্লাই জোন তৈরি করতে হলে ন্যাটোকে যুদ্ধবিমান পাঠাতে হবে। শুধু তাই নয়, প্রয়োজনে হানাদার রুশ ফাইটার জেটগুলিকে গুলি করে নামতে হবে। আর তেমনটা হলে রাশিয়ার সঙ্গে সরাসরি যুদ্ধে জড়িয়ে পড়তে পারে ন্যাটো।

প্রসঙ্গত, ইউক্রেনে জোরকদমে হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে রাশিয়া। পালটা মার দিচ্ছে ইউক্রেনীয় বাহিনীও। খেরসন শহরে রুশ অ্যাটাক হেলিকপ্টার গুলি করে নামানোর দাবি করেছে ইউক্রেনের সেনা। মেলিটোপলের পর নিপ্রোর মেয়রকে অপহরণ করেছে রুশ সেনা বলে অভিযোগ কিয়েভের। মিকোলাইভে দু’টি হাসপাতালে মিসাইল হামলা চালিয়েছে রাশিয়ার ফৌজ বলেও অভিযোগ। লিভিভের কাছে ইউক্রেনের সেনঘাঁটিতে অন্তত তিরিশটি ক্ষেপণাস্ত্র ছুঁড়েছে রাশিয়ার সেনাবাহিনী বলে খবর। ওই হামলায় ৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর।

[আরও পড়ুন: ইউক্রেনকে মিসাইল দিচ্ছে আমেরিকা, পালটা মার্কিন কনভয়ে হামলার হুমকি রাশিয়ার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে