১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ট্রাকের ধাক্কায় অন্তঃসত্ত্বার পেট ফেটে জন্মাল শিশুকন্যা, মা-বাবার মৃত্যু হলেও সুস্থ নবজাতক

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 17, 2022 9:18 am|    Updated: July 17, 2022 9:24 am

Baby girl born accidentally after truck crashed pregnant lady in Bangladesh | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কথায় বলে, রাখে হরি তো মারে কে! সেই প্রবাদই যেন সত্য প্রমাণিত হল বাংলাদেশে (Bangladesh)। শনিবার পথ দুর্ঘটনায় অন্তঃসত্ত্বার পেট ফেটে জন্ম নিল শিশুকন্যা। অথচ ঘটনাস্থলেই প্রাণ গেল নবজাতকের মা, বাবা এবং বড় দিদির। স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

শনিবার দুপুর তিনটে নাগাদ মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি (Bangladesh Accident) ঘটে ময়মনসিংহের ত্রিশাল এলাকায়। স্থানীয় সূত্রে খবর, বেসরকারি ক্লিনিক থেকে আল্ট্রাসনোগ্রাফি করে বেরিয়ে স্বামী-স্ত্রী এবং তাঁদের বড় মেয়ে রাস্তা পার করছিল। সেই সময় একটি বেপরোয়া ট্রাক তাদের ধাক্কা মারে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তিনজনের। কিন্তু ঘটনাস্থলেই অন্তঃসত্ত্বার পেট ফেটে সন্তান জন্ম নেয়। দুর্ঘটনায় সদ্যোজাতর একটি হাত ভাঙলেও সুস্থ রয়েছে সে।

[আরও পড়ুন: সমপ্রেম মেনে নেয়নি পরিবার, বিয়ের পরও বাড়ির লোকের চাপে ‘বিচ্ছেদ’ দুই নারীর]

মৃত ব্যক্তির নাম জাহাঙ্গির আলম (৪২)। তাঁর স্ত্রী রত্না বেগমকে (৩২) নিয়ে ত্রিশাল পুর এলাকার বেসরকারি ক্লিনিকে এসেছিলেন। সঙ্গে ছিল তাঁদের বড় মেয়ে সনজিদা (5)। ক্লিনিক থেকে ফেরার পথে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক পার করার সময়ই দ্রুতগতিতে আসা একটি ট্রাক তাঁদের ধাক্কা মারে। ঘটনাস্থলেই তিনজনের মৃত্যু হলেও পেট ফেটে বেরিয়ে আসে শিশুকন্যাটি। সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা জানান, সদ্যোজাত সুস্থ আছে। তবে একটি হাত ভেঙেছে।

দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে ত্রিশাল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবু বকর সিদ্দিক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, “নিহত স্বামী তাদের পাঁচ বছরের সন্তানকে নিয়ে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর আল্ট্রাসনোগ্রাফি করাতে এসেছিলেন। রাস্তা পার হওয়ার সময় ময়মনসিংহগামী একটি ট্রাক তাদের চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই স্বামী-স্ত্রী ও সন্তান মারা যায়।”

[আরও পড়ুন: মাত্র চার হাজার টাকায় মালিক হতে পারেন BMW’র বাইকের! জানেন কীভাবে?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে