ad
ad

Breaking News

Bangladesh

ফের সীমান্ত হাট চালু, পাইপলাইনে জ্বালানি আমদানি, অসমের স্পিকারকে আশ্বাস শেখ হাসিনার

বঙ্গবন্ধু জাদুঘর ও বিধানসভা ভবন ঘুরে দেখেছেন উত্তর-পূর্বের ৬২ জন প্রতিনিধি।

Bangladesh PM Sheikh Hasina assures Assam speaker of pipeline gas supply and market at border | Sangbad Pratidin
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:November 20, 2022 4:28 pm
  • Updated:November 20, 2022 4:40 pm

সুকুমার সরকার, ঢাকা: সীমান্তবাসীর সুবিধার কথা মাথায় রেখে ভারত এবং বাংলাদেশ (India-Bangladesh) সরকার যৌথ উদ্যোগে সীমান্ত এলাকায় কয়েকটি হাট চালু করে। দু’দেশের সীমান্তবর্তী মানুষ ওইসব হাট থেকে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য কেনাকাটা করে আসছিলেন। কিন্তু ২০২০ সালের মার্চে দিকে করোনা মহামারী (Coronavirus) দেখা দিলে উভয় সরকার জনজীবনের স্বার্থেই সীমান্তের হাটগুলি বন্ধ করে দেয়। কিন্তু সেই হাট ফের চালুর আশ্বাস মিলেছে বাংলাদেশের তরফে। অসম বিধানসভার স্পিকারের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (Bangladesh PM Sheikh Hasina) জানিয়েছেন, দু’দেশের বর্ডার হাট ফের চালু হবে।

রবিবার ঢাকার (Dhaka) গণভবনে অসম বিধানসভার স্পিকার বিশ্বজিৎ দাইমারীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিশ্বজিৎ দাইমারির নেতৃত্বে উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলির ৩২ জন বিধায়ক-সহ ৬২ জনের একটি প্রতিনিধি দল এই মুহূর্তে বাংলাদেশ (Bangladesh) সফরে রয়েছেন। রবিবার হাসিনার সঙ্গে একান্ত বৈঠক করেন স্পিকার।

[আরও পড়ুন: ভারতীয় ফুটবলে ম্যাচ গড়াপেটার ছায়া! সিবিআইয়ের নজরে দেশের পাঁচটি ক্লাব]

তারপরই বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, বন্ধ হয়ে যাওয়ায় দু’দেশের সীমান্ত (Border) লাইনের বিভিন্ন অংশে বর্ডার হাটগুলি ফের চালু হবে। শেখ হাসিনা আরও জানান, আগামী বছর ভারত থেকে বাংলাদেশে জ্বালানি তেল আমদানি শুরু হবে। শেখ হাসিনা আশাপ্রকাশ করে বলেন, ‘‘বাংলাদেশ পাইপলাইনের মাধ্যমে ভারত থেকে তেল আমদানি করতে চায়। আশা করছি, আগামী বছর তা শুরু করা যাবে।’’ ১৩০ কিলোমিটার দীর্ঘ ভারত-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ পাইপলাইন (IBFPL) প্রকল্পের লক্ষ্য ভারত থেকে বাংলাদেশে জ্বালানি পণ্য (Fuel) রপ্তানি করা, এমনই জানিয়েছেন হাসিনা।

[আরও পড়ুন: হাসতে হাসতে গর্ভবতী কুকুরকে পিটিয়ে মারল ছাত্ররা! ভিডিও ভাইরাল হতেই দায়ের FIR]

এদিন হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতের পাশাপাশি একাধিক কর্মসূচি ছিল উত্তর-পূর্ব ভারতের প্রতিনিধিদলের। তাঁরা বঙ্গবন্ধু জাদুঘর ঘুরে দেখেছেন। এছাড়া বিধানসভাও ঘুরে দেখে সেখান মধ্যাহ্নভোজ সারেন। এরপর তাঁরা ফিরে যান। 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ