BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

করোনার থাবা, বাংলাদেশে হোম কোয়ারেন্টাইনে বিদেশ ফেরত ২১৫ জন

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: March 12, 2020 2:05 pm|    Updated: March 12, 2020 2:05 pm

Corona fear in Bangladesh 215 people on self quarantine for recent arrivals

মাস্ক বিলি করা হচ্ছে

সুকুমার সরকার, ঢাকা: করোনা ভাইরাসের জীবাণু থাকতে পারে এই আশঙ্কায় বাংলাদেশের ১৭টি জেলায় বিদেশ ফেরত ২১৫ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। ইতিমধ্যে তিনজনের শরীরে করোনার ভাইরাসের সন্ধান পাওয়া যায়। এরপরই বাংলাদেশের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (IEDCR) গত তিনদিনে ২১৫ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখার নির্দেশ দেয়। এদের মধ্যে মানিকগঞ্জে ৭৯, নারায়ণগঞ্জে ৪০, মাদারিপুরে ৩০, কিশোরগঞ্জে ৩৪, ফেনীতে নয়, নোয়াখালিতে এক, যশোরে ছয়, বগুড়ায় দুই, নরসিংদীতে দুই, খুলনায় এক, সিলেটে এক, ফরিদপুরে তিন, জামালপুরে এক, রাজবাড়ীতে দুই, ঝিনাইদহে দুই, চুয়াডাঙায় এক এবং দিনাজপুরে একজন রয়েছেন।

জেলা ও উপজেলা স্বাস্থ্যকর্মীরা হোম কোয়ারেন্টাইনের প্রধান পর্যবেক্ষক হিসেবে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির পক্ষ থেকে তাঁদের স্বাস্থ্যের খোঁজও নেওয়া হয়েছে। মানিকগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলায় বিদেশ ফেরত ৭৯ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তাঁদের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ না থাকলেও সম্প্রতি বিদেশ থেকে আসায় নিজের বাড়িতে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। এপ্রসঙ্গে মানিকগঞ্জের সিভিল সার্জন ড. আনোয়ারুল আমিন আখন্দ বলেন, ‘বিদেশ ফেরত ৭৯ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। নারায়ণগঞ্জে ৪০ জনকে। IEDCR-এ ইতালি ফেরত দু’জন চিকিৎসাধীন। তাঁরা এই ৪০ জনের সংস্পর্শে এসেছিলেন। সেই কারণেই তাঁদের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। সেখানে IEDCR’র কর্মকর্তা ছাড়া কাউকে ভিড়তে দেওয়া হচ্ছে না।’

[আরও পড়ুন: বাংলাদেশে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, ঢাকায় পুড়ে ছাই দুই শতাধিক ঘর ]

 

মাদারিপুরের সিভিল সার্জন ড. মহম্মদ শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘এই জেলায় মোট ৩০ জনকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারে সন্দেহে বিদেশ ফেরত ৩৪ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এদের মধ্যে ৩২ জন পুরুষ, দুজন নারী।

[আরও পড়ুন: স্ত্রীর একাধিক প্রেমিক, ব্যভিচারের কথা জেনে ফেলায় খুন স্বামী]

 

ফেনীতে কেউ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত না হলেও সদ্য বিদেশ ফেরত নজনকে নিজের বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। নোয়াখালির হাতিয়া উপজেলার জাহাজমারা ইউনিয়নে এক কাতার প্রবাসীকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। চৌগাছা উপজেলায় ইতালি ফেরত এক দম্পতি-সহ মোট ছজনকে একজন চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। বগুড়ায় বিদেশ ফেরত দুজনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তাঁদের আগামী দু সপ্তাহ বাইরে বের না হতে অনুরোধ করা হয়েছে। বিদেশ ফেরত দুই ব্যক্তিকে যার যার বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। খুলনায় ইতালি ফেরত একজনকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে