৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুকুমার সরকার, ঢাকা: বাংলাদেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ করে  তথ্যপ্রযুক্তি খাতে ভারতের বিনিয়োগ বেড়েছে। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে যশোরের শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কের এক আলোচনা সভায় একথা জানিয়েছেন সেদেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনেইদ আহমেদ। তাঁর মতে, ভারতের প্রযুক্তি ও অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশ সমৃদ্ধির পথে হাঁটছে।

[আরও পড়ুন: পূর্ণ স্বাধীনতা রয়েছে সংবাদমাধ্যমের, জানালেন শেখ হাসিনা]

বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ সূ্ত্রে জানানো হয়েছে, সফটওয়্যার পার্কে আয়োজিত ‘তথ্য প্রযুক্তি এবং উদ্ভাবন বিষয়ে ভারত-বাংলাদেশ সহযোগিতা ও সম্ভাবনা’ সংক্রান্ত আলোচনার মূল বিষয় ছিল, সফটওয়্যার ক্ষেত্রে বিনিয়োগকারী সংস্থাগুলির ব্র্যান্ডিংয়ে ভারত-বাংলাদেশ যৌথ সহযোগিতার ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা। বৃহস্পতিবার আলোচনার শুরুতে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ম্যানেজিং ডিরেক্টর হোসনে আরা বেগম। আলোচনা চক্রে অংশ নিয়েছেন ভারতীয় হাইকমিশনার রিভা গঙ্গোপাধ্যায় দাস, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মহম্মদ আনোয়ার হোসেন এবং ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ান চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ-এর রিসোর্স পারসন সৌম্য বসু।

হাই-টেক পার্কের তথ্য অনুযায়ী, দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে তথ্যপ্রযুক্তি শিল্পের সুষম বিকাশ ও উন্নয়নের উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক প্রকল্পটি গ্রহণ করা হয়েছিল। পার্কে আধুনিক সুযোগ-সুবিধাসহ ১৫ তলা ভবন, আন্তর্জাতিক থ্রি স্টার সমতুল্য আবাসন ও জিমনেসিয়ামের সুবিধাসহ ১২ তলা ডরমিটরি ভবন রয়েছে। একটি ক্যানটিন ও অ্যাম্ফিথিয়েটার, ৩৩ কেভিএ পাওয়ার সাব-স্টেশন, ফাইবার অপটিক ইন্টারনেট লাইন এবং অন্যান্য ইউটিলিটি সার্ভিস দেওয়া হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: অপরাধমূলক কাজে যুক্ত থাকায় ২০ জন তরুণকে কারাদণ্ডের শাস্তি বাংলাদেশে]

২০১৭ সালের ১০ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কের উদ্বোধন করেন। তারপর থেকেই পার্কের পরিকাঠামো উন্নয়নে কাজ চলছে। সেইসঙ্গে আরও কীভাবে এই তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রটিকে জোরদার করা যায়, সে বিষয়ে আলাপ আলোচনাও চলে। আর এবিষয়েই ভারতীয় প্রযুক্তিবিদদের সাহায্য নিচ্ছে বাংলাদেশ। সেই কাজ যে ভালই চলছে, তা বোঝা গেল এদিন তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রীর কথায়।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং