২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

বাংলাদেশের জনসংখ্যার ৪০ শতাংশই করোনা আক্রান্ত! আশঙ্কা বিশিষ্ট বিজ্ঞানীর

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: May 31, 2020 2:14 pm|    Updated: June 2, 2020 1:40 pm

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: বাংলাদেশের সাড়ে ১৭ কোটি মানুষের মধ্যে ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিজ্ঞানী বিজন কুমার শীল। তাঁর দাবি, আক্রান্ত হলেও এদের অধিকাংশই বুঝতে পারেননি যে তারা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। গতকাল শনিবার রাতে একটি সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে ফেসবুক লাইভে এ কথা বলেন করোনা পরীক্ষায় গণস্বাস্থ্যের র‌্যাপিড টেস্ট কিট আবিষ্কারক দলের প্রধান বিজন কুমার শীল। তিনি বলেন, ‘আমার অবজারভেশন যেটা- অনেক মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হয়ে গিয়েছেন। তাঁরা নিজেরাও জানেন না। আমার ধারণা ৩০-৪০ শতাংশ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়ে গেছেন, তারা হয়তো জানেনই না। হয়তো তাঁদের একটু জ্বর হয়েছে, কাশি হয়েছে, দুর্বলতা অনুভব করেছে।’

বিজন কুমার শীল বলেন, ‘করোনা কাউকে ছাড়বে না। আপনি যতই লুকিয়ে থাকেন করোনা আপনাকে, আমাকে আক্রান্ত করবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘ইউরোপের তুলনায় বাংলাদেশের মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি । ইউরোপে যখন করোনা আক্রান্ত করে তখন তাপমাত্রা কম ছিল এবং বাতাস চলাচলও কম ছিল। বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের তীব্রতা ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ কমে গিয়েছে। আগামী এক মাসের মধ্যে পরিস্থিতির আরও উন্নতি ঘটবে’ বলে জানান এই বিজ্ঞানী। তিনি বলেন, ‘হার্ড ইউমিনিটিতে পৌঁছতে হলে ৮০ ভাগ মানুষকে আক্রান্ত হতে হবে।’ যা আগামী এক মাসের মধ্যে ঘটতে পারে বলে মনে করছেন বিজন কুমার শীল।

[আরও পড়ুন: শিকেয় সামাজিক দূরত্ব, লকডাউন শিথিল হওয়ায় ঢাকামুখী শতাধিক মানুষ]

এদিকে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) অধ্যাপক সাবরিনা ইসলাম সুইটির। তিনি শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। শনিবার রাত পৌনে তিনটের দিকে চট্টগ্রাম নগরীর মেট্রোপলিটন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তিনি আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউটের সহযোগী অধ্যাপক ছিলেন। অপরদিকে বেসরকারি শান্ত-মারিয়াম ইউনিভার্সিটি অব ক্রিয়েটিভ টেকনোলজি ও সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও মুক্তিযোদ্ধা ইমামুল কবীর শান্ত (৭০) কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন। শনিবার ঢাকায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়। কোভিডের লক্ষণ-উপসর্গ থাকায় তাঁকে প্রথমে ল্যাবএইড ও পরবর্তীতে হোলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে তাঁকে সিএমএইচে ভর্তি করা হলে আজ, রবিবার সিএমএইচের আইসিইউতে তিনি মারা যান।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement