২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

করোনার মারে জেরবার, অবশেষে বাংলাদেশের শরণাপন্ন পাকিস্তান

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: June 3, 2020 5:36 pm|    Updated: June 3, 2020 5:36 pm

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: মুক্তিযুদ্ধের ক্ষত আজও টাটকা পাকিস্তানের বুকে। বাঙালির মারে অঙ্গচ্ছেদের জ্বালা এখনও ভোলেনি রাওয়ালপিণ্ডি। স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা দেখে বরাবরই চোখ টাটায় ইসলামাবাদের। কিন্তু করোনার মারে জেরবার হয়ে শেষমেশ বাংলাদেশের কাছেই হাত পাততে হল পাকিস্তানকে।

[আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্তের থেকে উপসর্গে মৃতের সংখ্যা বেশি, চিন্তায় হাসিনা প্রশাসন]

সদ্য বাংলাদেশের কাছ থেকে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য অ্যান্টিভাইরাল ওষুধ রেমডিসিভির ক্রয় করেছে পাকিস্তান। গত রবিবার একটি বিশেষ কার্গো বিমানে ওষুধগুলি পাঠানো হয়েছে। করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসা দিতে বাংলাদেশের বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের তৈরি রেমডিসিভির (ব্র্যান্ড নাম বেমসিভির) কিনেছে ইসলামাবাদ। বেক্সিমকোর এক মুখপাত্র জানান, ঢাকায় পাকিস্তান দূতাবাসের অনুরোধে ওশুধটি পাঠানো হয়েছে। দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত তিনজন গুরুতর অসুস্থকে জরুরি চিকিৎসা দিতে ৪৮টি ইঞ্জেকশন নিয়েছে তারা। বর্তমানে পাকিস্তানে ৭২ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত। মৃত্যু হয়েছে দেড় হাজারেরও বেশি আক্রান্তের। সুস্থ হয়েছেন ২৬ হাজারের বেশি।

আগেই নোভেল করোনা ভাইরাসের তীব্র প্রকোপের মুখে বাংলাদেশ থেকে রেমডেসিভির কেনার কথা জানিয়েছিল পাকিস্তান। সে দেশের তৃতীয় বৃহত্তম ওষুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান সিয়ারলে কম্পানি লিমিটেড রেমডেসিভির আমদানির জন্য বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষ ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের সঙ্গে একটি চুক্তি সই করে। এই চুক্তির সুবাদে সিয়ারলে এককভাবে পাকিস্তানে বেক্সিমকোর উৎপাদিত রেমডেসিভির, যার ব্র্যান্ড নাম বেমসিভির, আমদানি ও বাজারজাত করতে পারবে।

[আরও পড়ুন: করোনা সংক্রমণ রুখতে ভারতের পথে বাংলাদেশ, চিহ্নিত লাল-সবুজ-হলুদ জোন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement