BREAKING NEWS

১৯ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ৫ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

অর্থনীতি বাঁচানোর তাগিদ, ২ মাস লকডাউনের পর স্বাভাবিক ছন্দে বাংলাদেশের জনজীবন

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: May 31, 2020 2:59 pm|    Updated: May 31, 2020 2:59 pm

An Images

বাংলাদেশে শুরু হল ট্রেন চলাচল

সুকুমার সরকার, ঢাকা: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে লকডাউনের সময়সীমা আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত বৃদ্ধি করেছে ভারত। অন্যদিকে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের মধ্যেই ৬৬দিন ছুটির শেষে, রবিবার থেকে ফের সরব হয়ে উঠল রাজধানী ঢাকা-সহ সারা বাংলাদেশ। একমাত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ব্যতীত সরকারি-বেসরকারি অফিস ও শিল্পকারখানা খুলে গেল আজ।

এদিন পুরোদমে শুরু হল প্রশাসনের প্রাণকেন্দ্র বাংলাদেশ সচিবালয়ের যাবতীয় কার্যক্রম। চালু হল ব্যাংকের স্বাভাবিক লেনদেনও। দুমাসের বেশি বন্ধ থাকার পর রবিবার থেকে চলাচল শুরু হয়েছে আন্তঃনগর ট্রেন ও লঞ্চ। আগামীকাল সোমবার থেকে শুরু হবে বাস চলাচল। হাসিনা সরকার রবিবার থেকে বাস চলাচলের অনুমতি দিলেও বাস মালিকরা একদিন পর থেকে চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। দীর্ঘদিন ধরে বসে থাকা বাস মেরামত ও সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী অর্ধেক যাত্রী নিয়ে বাস চালানোর জন্য ভাড়া ৮০ শতাংশ বৃদ্ধির যে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। তার সুরাহা হলেই বাস রাস্তায় নামাতে চান তাঁরা। এর আগে গতকাল বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ কর্তৃপক্ষের (BRTA) সঙ্গে বাস মালিকদের বৈঠকে বাস ভাড়া ৮০ শতাংশ বৃদ্ধির সুপারিশ করা হয়েছিল।

[আরও পড়ুন: বাংলাদেশের জনসংখ্যার ৪০ শতাংশই করোনা আক্রান্ত! আশঙ্কা বিশিষ্ট বিজ্ঞানীর ]

এপ্রসঙ্গে বিআরটিএর পরিচালক লোকমান হোসেন মোল্লা বলেন, ‘বাস মালিকের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। বাস ও মিনিবাস ১ জুন থেকে চলাচল করবে।’ এছাড়া কাল সোমবার থেকে অভ্যন্তরীণ বিমান চলাচল শুরু হবে। অবশ্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে অফিস চালাতে ও যান চলাচল করতে নির্দেশ দিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। আগের ভাড়ায় ট্রেনে অর্ধেক যাত্রী বহনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। বাসে অর্ধেক আসনে যাত্রী বহনের অনুমতি দিয়ে ভাড়া ৮০ শতাংশ বাড়ানোর সুপারিশ করেছে বিআরটিএ। লঞ্চেও সার্ভে সনদে নির্ধারিত যাত্রীর বেশি বহনে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বিআইডব্লিউটিএ। তবে এসব পদক্ষেপ নেওয়ার পরও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাই বড় চ্যালেঞ্জ মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাঁদের আশঙ্কা, ওই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ব্যর্থ হলে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা বেড়ে যাবে।

এপ্রসঙ্গে বাংলাদেশের জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, ‘করোনা ভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কা থেকেই আমরা প্রত্যেকের মুখে মাস্ক ব্যবহার ও শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার বিষয়ে কঠোর অবস্থান নিয়েছি। কেউ মাস্ক ব্যবহার না করলে তাকে শাস্তির মুখে পড়তে হবে।’

[আরও পড়ুন: খুন হওয়ায় ২৬ জন বাংলাদেশির জন্য লিবিয়ার কাছে ক্ষতিপূরণ চাইল ঢাকা]

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বাংলাদেশে গত ৮ মার্চ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত প্রথম রোগী শনাক্তের পর ২৬ মার্চ থেকে ছুটি ঘোষণা করে সরকার। কয়েক দফায় তা বাড়িয়ে ৩০ মে পর্যন্ত করা হয়। সেই ৬৬ দিন ছুটি আজ রবিবার শেষ হল। এটিই দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে লম্বা ছুটি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement