BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১১ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

এক যুগের অবসান, প্রয়াত বাংলাদেশের ‘প্লেব্যাক সম্রাট’ অ্যান্ড্রু কিশোর

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: July 7, 2020 1:23 pm|    Updated: July 7, 2020 1:23 pm

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: প্রয়াত বাংলাদেশের ‘প্লেব্যাক সম্রাট’ অ্যান্ড্রু কিশোর। দীর্ঘদিন ধরেই মারণ ক্যানসারে ভুগছিলেন প্রবল জনপ্রিয় এই গায়ক। অবশেষে সোমবার সন্ধ্যায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

[আরও পড়ুন: আমফানে ক্ষতিগ্রস্ত সিনেমা হলগুলিকে অর্থ সাহায্যের আশ্বাস মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের]

অ্যান্ড্রু কিশোরের বড় বোনের স্বামী ডা. প্যাট্রিক বিপুল বিশ্বাস কিশোরের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। শরীরে একাধিক জটিলতা নিয়ে এন্ড্রু কিশোর অসুস্থ অবস্থাতেই গতবছর সিঙ্গাপুরে গিয়েছিলেন। বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তাঁর শরীরে নন-হজকিন লিম্ফোমা নামের ব্লাড ক্যানসার ধরা পড়ে। সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক লিম সুন থাইয়ের অধীনে তাঁর চিকিৎসা চলছিল তবে লিভার এবং স্পাইনাল কর্ডে ছড়িয়ে পড়েছিল ক্যানসার। তারপর জুনের ১১ তারিখ দেশে ফিরে আসেন তিনি। ‘জীবনের গল্প বাকি আছে অল্প’- মাসখানেক আগে উইলচেয়ারের বসেই মঞ্চে এই গান গেয়েছিলেন ওপার বাংলার কিংবদন্তি গায়ক এন্ড্রু কিশোর। তা, সত্যিই যে গল্প ফুরোতে চলেছে তা তখন বোঝা যায়নি।

১৯৫৫ সালের ৪ নভেম্বর রাজশাহীতে জন্মগ্রহণ করেন অ্যান্ড্রু কিশোর। প্লে-ব্যাকের দুনিয়ায় তাঁর যাত্রা শুরু হয় ১৯৭৭ সালে। আলম খানের সুরে ‘মেল ট্রেন’ ছবিতে ‘অচিনপুরের রাজকুমারী নেই যে তাঁর কেউ’ গানটি গেয়েছিলেন তিনি। বাকিটা ইতিহাস। প্রায় ১৫ হাজারেরও বেশি গান রেকর্ড করেছেন তিনি। তাঁর অন্যতম জনপ্রিয় গানের মধ্যে রয়েছে- জীবনের গল্প আছে বাকি অল্প, হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস, ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে, আমার সারা দেহ খেয়ো গো মাটি, আমার বুকের মধ্যেখানে, আমার বাবার মুখে প্রথম যেদিন শুনেছিলাম গান, ভেঙেছে পিঞ্জর মেলেছে ডানা, সবাই তো ভালোবাসা চায়।

[আরও পড়ুন: রাতের আকাশে তারা হয়ে বেঁচে থাকবেন সুশান্ত, অভিনেতার নামে নক্ষত্রের নাম রাখলেন অনুরাগী]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement