৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুকুমার সরকার, ঢাকা: সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে গেলে লাইন যে দিতে হবে তা আর কে না জানেন। তাতে অবাক হওয়ার মতো কিছুই নেই। কিন্তু আমজনতার মতো কোনও দেশের প্রধানমন্ত্রীর ক্ষেত্রেও কি একই নিয়ম প্রযোজ্য? এ প্রশ্নের উত্তর যে না হবে, সে-ও স্বাভাবিক। কিন্তু সকলকে অবাক করে দিয়ে সেই নিয়মই বদলে দিলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর পাঁচজনের মতো লাইন দাঁড়িয়ে হাসপাতালে চোখের চিকিৎসকের সঙ্গে দেখা করলেন তিনি।

[আরও পড়ুন: বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিনিয়োগ বাড়ছে ভারতের, আরও উন্নয়নের আশা]

বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকার শের-ই-বাংলা নগরের জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে যান শেখ হাসিনা। সবাইকে অবাক করে দিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে পড়েন। আমজনতার মতোই দশ টাকা দিয়ে টিকিট কেটে নেন তিনি। এরপরই চক্ষু বিশেষজ্ঞের সঙ্গে দেখা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক প্রধানমন্ত্রীর চিকিৎসা করেন। চোখ দেখানোর পর প্রধানমন্ত্রী হাসপাতালের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে খোঁজখবর নেন।

[আরও পড়ুন: রাজাকারদের তালিকা তৈরির কাজ শুরু করল হাসিনা সরকার]

চিকিৎসক ও নার্সদের পরিষেবার প্রশংসা করেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। তবে এই প্রথম নয়। এর আগেও বেশ কয়েকটি সরকারি হাসপাতালে সাধারণ রোগীর মতো লাইনে দাঁড়িয়ে চিকিৎসা করিয়েছেন শেখ হাসিনা। গত এপ্রিলে চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটেই একইভাবে চোখের চিকিৎসা করিয়েছিলেন তিনি। এছাড়া গাজিপুরে মায়ের নামে প্রতিষ্ঠিত শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল কেপিজে হাসপাতালে লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট কেটে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করান বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং