২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

বিক্রম রায়, কোচবিহার: দিনহাটায় হারানো জমি পুনরুদ্ধার করল তৃণমূল শিবির। বিধায়ক উদয়ন গুহর হাত ধরে দলে ফিরলেন দলত্যাগী ১০ পঞ্চায়েত সদস্য। লোকসভা নির্বাচনের পরই দল ছেড়েছিলেন এই পঞ্চায়েত সদস্যরা। দলত্যাগীদের ফিরে আসায় খুশির হাওয়া জেলা তৃণমূল শিবিরে।

[আরও পড়ুন: চিকিৎসকের পরিবর্তে ওঝার দ্বারস্থ সর্পাঘাতে আক্রান্ত নাবালিকা, টানাপোড়েনে মৃত্যু]

কোচবিহারের দিনহাটা ২ নম্বর ব্লকের সাহেবগঞ্জ পঞ্চায়েত ছিল তৃণমূলের দখলে। কিন্তু লোকসভা নির্বাচনে ভরাডুবির পর দলের কর্মীদের মধ্যে প্রবণতা দেখা দেয় দলত্যাগের। সেই সময়ই রাজ্যে পালাবদলের লক্ষ্যে গোটা রাজ্যের প্রচুর তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। সেই সময়ই দিনহাটার সাহেবগঞ্জ পঞ্চায়েতের মোট ১৭ জন সদস্যের মধ্যে ১৪ জনই বিজেপিতে যোগ দেন। সেই কঠিন পরিস্থিতিতে লড়াই করে হারানো মাটিতে ফের নিজেদের অস্তিত্ব প্রতিষ্ঠা করলেন দিনহাটার বিধায়ক উদয়ন গুহ। মঙ্গলবার সকালে উদয়ন গুহর হাত ধরেই ফের তৃণমূলে ফিরলেন দলত্যাগী ১০ পঞ্চায়েত সদস্য। ফলে ফের পঞ্চায়েতে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেল শাসক শিবির।

এ প্রসঙ্গে উদয়ন গুহ জানান, “লোকসভা নির্বাচনের ফলাফলে নিরাশ ও বিরক্ত হয়ে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকরা দল ছাড়তে শুরু করেছিলেন। কয়েকদিনেই বিজেপির সন্ত্রাসে তাঁরা বীতশ্রদ্ধ। সেই কারণে তাঁরা ফের আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। ফেরার ইচ্ছে প্রকাশ করেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নের টানে আজ দলে ফিরলেন দলত্যাগী ভাই-বোনেরা।” এর পাশাপাশি তিনি জানান, শুধু এই পঞ্চায়েত নয়, জেলা ও গোটা রাজ্যের দলত্যাগী কর্মীরা ফের তৃণমূলে ফিরছেন।

প্রসঙ্গত, লোকসভা নির্বাচনে ভরাডুবির পরই শাসকদলের তরফ থেকে বিভিন্নরকম পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। জনসংযোগে জোর দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মু্খ্যমন্ত্রী। এই পরিস্থিতিতে দলত্যাগীদের ঘরে ফেরা কর্মীদের বাড়তি অক্সিজেন দেবে বলেই মনে করছে শাসক শিবির। 

ছবি ও ভিডিও: দেবাশিস বিশ্বাস

  [আরও পড়ুন: সদস্য সংগ্রহ লক্ষ্যপূরণে ব্যর্থ, দলীয় নির্দেশে মাঠে নামলেন পুরুলিয়ার বিজেপি সাংসদ]

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং