BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

ফের রাজ্যে রেকর্ড করোনা সংক্রমণ, গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত প্রায় আড়াই হাজার

Published by: Sayani Sen |    Posted: July 23, 2020 8:45 pm|    Updated: July 23, 2020 8:49 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা (Coronavirus) সংক্রমণ রুখতে সাপ্তাহিক লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য। চলতি সপ্তাহে বৃহস্পতিবারই ছিল লকডাউন। সেদিনই ফের উদ্বেগজনক হারে বাড়ল করোনা সংক্রমণ। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা আক্রান্ত ২ হাজার ৪৩৬ জন। যা সংক্রমণের নিরিখে রেকর্ড। একদিনে মৃত্যু হয়েছে ৩৪ জনের। রাজ্যে সুস্থতার হারই খানিক স্বস্তি দিচ্ছে আমজনতাকে। সুস্থতার হার ৬১.১৬ শতাংশ। 

রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তরের বৃহস্পতিবারের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ৪৩৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তার মধ্যে শুধু কলকাতাতেই আক্রান্ত হয়েছেন ৭৯৫ জন। বর্তমানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৫১ হাজার ৭৫৭ জন। মৃত্যু  হয়েছে একদিনে ৩৪ জনের। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত করোনার বলি হয়েছেন ১ হাজার ২৫৫ জন। রাজ্যের উর্ধ্বমুখী করোনা গ্রাফ চিন্তা বাড়াচ্ছে সকলের। তবে সংক্রমণের নিরিখে রাজ্যের সুস্থতার হার কিছুটা হলেও কঠিন পরিস্থিতিতে আশার আলো জোগাচ্ছে। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত সুস্থতার হার ৬১.১৬ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিডকে হারিয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২ হাজার ৬ জন। তার ফলে করোনা যোদ্ধার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৩১ হাজার ৬৫৬ জন। 

[আরও পড়ুন: আমফানের ক্ষতিপূরণে ‘দুর্নীতি’, পঞ্চায়েত সদস্যের বাড়ি ঘেরাও, রায়চকে পুলিশ-জনতা খণ্ডযুদ্ধ]

করোনা পরীক্ষা ঠিকমতো হচ্ছে না বলে প্রথম দিকে অভিযোগের সুর চড়িয়েছিলেন বিরোধীরা। যদিও বর্তমানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) নিজেই জানিয়েছেন, রাজ্যে করোনা পরীক্ষা বেশি হচ্ছে। তাই সংক্রমণের গ্রাফও বেশ উর্ধ্বমুখী। তবে আতঙ্কিত না হওয়ারই বার্তা দিয়েছেন তিনি। রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় পরীক্ষা হয়েছে ১৪ হাজার ৫৫৮ জনের। তার মধ্যে ৬.৮৩ শতাংশ মানুষেরই করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। তার ফলে রাজ্যে মোট পরীক্ষা হয়েছে ৭ লক্ষ ৫৮ হাজার ২৭  জনের। 

রাজ্যের কিছু কিছু জায়গায় করোনার গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হয়েছে বলে সদ্যই জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। সংক্রমণকে বাগে আনতে সপ্তাহে দু’দিন করে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার ছিল চলতি সপ্তাহে লকডাউনের প্রথম দিন। নাকা তল্লাশি, ধরপাকড়ের মাধ্যমে যথেষ্ট সফল লকডাউন। তবে এভাবে ভাইরাস সংক্রমণ বাগে আনা যায় কিনা, সেটাই এখন দেখার। 

[আরও পড়ুন: ছাত্রীকে হেনস্তার অভিযোগ, কাঠগড়ায় বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement