BREAKING NEWS

২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বুধবার ৭ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সচেতনতা প্রচার কর্মসূচিতে খাবার খেয়ে অসুস্থ অন্তত ৬৪ পড়ুয়া, প্রতিবাদে ঘেরাও বিধায়ক

Published by: Sayani Sen |    Posted: July 22, 2022 6:22 pm|    Updated: July 22, 2022 7:25 pm

64 students taken ill after eating 'contaminated' food in Burdwan । Sangbad Pratidin

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: প্লাস্টিক বর্জনের বার্তায় মিছিল শেষে স্থানীয় পঞ্চায়েত থেকে দেওয়া খাবার খেয়ে অসুস্থ অন্তত ৬৪ জন স্কুলপড়ুয়া। অসুস্থদের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। বর্ধমানের নবস্তা গ্রাম পঞ্চায়েতের আউশা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ঘটনা। খাদ্যে বিষক্রিয়ার জেরে একের পর এক শিশু অসুস্থ হয়ে পড়েছে বলেই অনুমান।

গত ১ জুলাই থেকে গোটা দেশজুড়ে প্লাস্টিক নিষিদ্ধ বলে ঘোষণা করা হয়েছে। তা সত্ত্বেও বিভিন্ন জায়গায় প্লাস্টিক ব্যবহার হচ্ছেই। তাই সচেতনতা প্রচারে বর্ধমানের ২ নম্বর ব্লকে মিছিলের আয়োজন করে নবস্তা গ্রাম পঞ্চায়েত কর্তৃপক্ষ। ওই মিছিলে পা মেলায় আউশা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। মিছিল শেষে স্থানীয় পঞ্চায়েতের তরফে পড়ুয়াদের হাতে খাবারদাবার ভরা একটি বাক্স দেওয়া হয়। ওই বাক্সে কেক, মিষ্টি ছিল। এছাড়া ঠাণ্ডা পানীয়ের বোতলও দেওয়া হয়।

[আরও পড়ুন: দেহে সুতোটুকু নেই, ক্যামেরায় পোজ রণবীরের! বললেন ‘হাজার মানুষের সামনে নগ্ন হতে পারি’]

এত দূর পর্যন্ত সব ঠিকঠাকই ছিল। বিপত্তি ঘটল খাবার খাওয়ার পর। বেশ কিছু পড়ুয়া খাবার খাওয়ার পরই অসুস্থ বোধ করতে থাকে। কারও পেটে যন্ত্রণা শুরু হয়। কারও বা বমি বমি ভাব হতে থাকে। মাত্র কিছুক্ষণের মধ্যে অন্তত ৬৪ জন পড়ুয়া অসুস্থ হয়ে পড়ে। কী কারণে শিশুরা অসুস্থ হল, তা বুঝতে পারেননি কেউ। একের পর এক অসুস্থ শিশুকে বরশুল স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। বাকি কয়েকজনকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই আপাতত চিকিৎসাধীন প্রত্যেকে। বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের শিশু বিভাগের প্রধান কৌস্তভ নায়েক বলেন, “খাদ্যে বিষক্রিয়ার ফলে শিশুরা অসুস্থ হয়ে পড়েছে। সকলের অবস্থাই এখন স্থিতিশীল। অযথা উদ্বিগ্ন হওয়ার মতো কোনও কারণ নেই।”

এই ঘটনার প্রতিবাদে নবস্তা গ্রাম পঞ্চায়েতের সামনে বিক্ষোভ দেখান অভিভাবক এবং স্কুল কর্তৃপক্ষ। পঞ্চায়েত দপ্তরে ভাঙচুরও চালানো হয়। স্থানীয় রাস্তা অবরোধও করেন বিক্ষোভকারীরা। ঘটনাস্থলে পৌঁছন বিধায়ক নিশীথ মালিক। তাঁকে ঘিরেও বিক্ষোভ দেখায় উত্তেজিত স্থানীয়রা। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। তবে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে তর্কাতর্কি শুরু হয় পুলিশকর্মীদের। সব শেষে বাধ্য হয়ে লাঠি উঁচিয়ে বিক্ষোভকারীদের ঘটনাস্থল থেকে হঠিয়ে দেন ঊর্দিধারীরা। ভাঙচুরের ঘটনায় নাম জড়িয়েছে স্কুলশিক্ষক রাধাকান্ত রায় এবং স্থানীয় বিজেপি নেতা দুর্জয় মাহাতোর। পুলিশ ওই বিজেপি নেতাকে আটক করেছে।

[আরও পড়ুন: ‘বাড়িতে থাকলে দিদির নির্দেশ মতো মুড়ি খাওয়াতাম’, ইডি হানাকে পাত্তা দিচ্ছেন না পরেশ অধিকারী!]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে