BREAKING NEWS

১৯  মাঘ  ১৪২৯  শুক্রবার ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

লাগাতার হুমকি দিচ্ছে ক্লাব কর্তৃপক্ষ! ফেসবুক লাইভে ক্ষোভ প্রকাশ করে ‘আত্মঘাতী’ হুগলির বিজেপি নেতা

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: August 29, 2022 6:39 pm|    Updated: August 29, 2022 6:48 pm

A bjp leader of Hooghly allegedly commits suicide | Sangbad Pratidin

দিব্যেন্দু মজুমদার, হুগলি: স্থানীয় ক্লাবের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ উগরে আত্মঘাতী বিজেপি কার্যকর্তা। ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য চুঁচুড়ায়। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারির দাবিতে উত্তাল এলাকা। সোমবার দীর্ঘক্ষণ হুগলি (Hooghly) ব্যান্ডেল মোড়ে জিটি রোড অবরোধ করে বিজেপি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত বিজেপি নেতার নাম অভিষেক চৌধুরী। চুঁচুড়া থানার কেওটা মিলিটারি ৩ নম্বর কলোনির বাসিন্দা তিনি। সোমবার ভোররাতে মিলিটারি কলোনির বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় অভিষেকের ঝুলন্ত দেহ। এরপরই প্রকাশ্যে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। জানা যায়, আত্মহত্যার আগে ফেসবুক লাইভ করেছিলেন অভিষেক। আত্মহত্যার সিদ্ধান্তের কথাও জানিয়েছিলেন। তিনি বলেন, তাঁর মৃত্যুর জন্য চুঁচুড়ার ‘আমরা ক’ জন’ ক্লাবের কর্মকর্তা কুণাল সরকার দায়ী। জানান, বিজেপির মিছিলে হাঁটার কারণে তাঁকে লাগাতার হুমকি দেওয়া হচ্ছিল। ফলে মৃত্যু ছাড়া কোনও উপায় নেই। এরপরই সোমবার সকালে পরিবারের লোকজন তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করেন। নিয়ে যাওয়া হয় চুঁচুড়া ইমামবাড়া হাসপাতালে। সেখানকার চিকিৎসকরা অভিষেককে মৃত ঘোষণা করেন।

[আরও পড়ুন: শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি: তদন্তে অসহযোগিতার অভিযোগ, ফের সিবিআই হেফাজতে পার্থ ঘনিষ্ঠ প্রসন্ন]

এদিকে ততক্ষণে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল অভিষেকের করা শেষ লাইভ। সেটিকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক মহলে তোলপাড় শুরু হয়ে যায়। বিজেপির স্থানীয় মণ্ডল সভাপতি রাকেশ যাদবের নেতৃত্বে বিজেপি কর্মীরা ব্যান্ডেল মোড়ে জি টি রোড অবরোধ করে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের দাবিতে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। পুলিশ বিক্ষোভ ওঠাতে গেলে রীতিমতো তর্ক-বিতর্ক শুরু হয়ে যায়। পরে পুলিশি আশ্বাসে অবরোধ উঠে। মৃতের পরিবারের পক্ষ থেকে রাজু চৌধুরী এদিন দুপুরে চুঁচুড়া থানায় কুণাল সরকারের বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ দায়ের করেন। তবে পরিবারের পক্ষ থেকে এই বিষয়ে কেউ কোনও মন্তব্য করতে চাননি।

বিজেপির হুগলি মণ্ডলের পক্ষ থেকে মণ্ডল সভাপতি রাকেশ যাদব চন্দননগর পুলিশ কমিশনারেটের পুলিশ কমিশনারের কাছে লিখিতভাবে বিষয়টি জানিয়েছেন। তাঁরা দাবি করেছেন এর পিছনে বৃহত্তর ষড়যন্ত্র রয়েছে। বিজেপির হুগলি সাংগঠনিক জেলার পক্ষ থেকে সুরেশ সাউ জানান, অভিষেক দীর্ঘদিন ধরে বিজেপি কার্যকর্তা হিসেবে কাজ করছেন। সুরেশবাবুর অভিযোগ, তাঁদের কার্যকর্তার উপর মানসিক নির্যাতন চালানো হয়েছে এবং তার জেরেই সে আত্মহত্যা করেছে।

[আরও পড়ুন: ‘কেষ্টর মতো ছেলে হয় না’, টিএমসিপির সভায় মমতার মুখে পার্থরও নাম]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে