BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘দিদিকে বলো’ হেল্পলাইনে কাজের সুবাদে লোন পাইয়ে দেওয়ার মিথ্যে প্রতিশ্রুতি, ধৃত যুবক

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 27, 2020 9:30 pm|    Updated: September 27, 2020 9:30 pm

An Images

বিপ্লবচন্দ্র দত্ত, কৃষ্ণনগর: “দিদিকে বলো” (Didi Ke Bolo) হেল্পলাইন কাজ করার সুবাদে লোন পাইয়ে দেওয়ার মিথ্যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ। টিটাগড় থেকে গ্রেপ্তার এক যুবক। যদিও নদিয়ার শান্তিপুর থানায় ওই যুবকের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ দায়ের করেন ফুলিয়ার এক ব্যক্তি। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে শান্তিপুর থানার পুলিশ টিটাগড়ে গিয়ে প্রতারণার অভিযোগে অভিযুক্ত ওই যুবককে গ্রেপ্তার করে। 

ওই যুবককে জিজ্ঞাসাবাদের পর পুলিশ জানতে পারে, তার আসল নাম আক্রম আলি। বিশ্বজিৎ বিশ্বাস নামে ফুলিয়ার ওই ব্যক্তিকে তিনি লোন পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ১২ হাজার টাকা নিয়েছে বলে অভিযোগ। বিশ্বজিৎ বিশ্বাসকে আক্রম আলি নিজের নাম প্রথমে বিশ্বজিৎ বাগ বলে জানিয়েছিল। বলেছিল, সে “দিদিকে বলো”র হেল্পলাইনে কাজ করেন। লোন পাইয়ে দেবেন। এই বলেই ১২ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় সে। যদিও টাকা দেওয়ার বেশ কয়েকমাস কেটে যাওয়ার পরেও লোন না মেলায় বিশ্বজিৎ বিশ্বাস পুলিশের কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন। তাঁর অভিযোগ, লোন পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ওই যুবক তাঁর কাছ থেকে দু’দফায় ১২ হাজার টাকা নিয়েছেন। যদিও টাকা নেওয়ার পর থেকে ওই যুবক তার সঙ্গে আর যোগাযোগ রাখছিলেন না। বেশ কয়েকমাস কেটে যাওয়ার পর প্রতারিত হয়েছেন বুঝে তিনি শান্তিপুর থানায় প্রতারণার অভিযোগ দায়ের করেন।

[আরও পড়ুন: ‘করোনা হলে প্রথমেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জড়িয়ে ধরব’, ফের বিতর্কিত মন্তব্য অনুপমের]

সেই অভিযোগের ভিত্তিতে শনিবার রাতে শান্তিপুর থানার পুলিশ টিটাগড় থেকে আক্রম আলি নামে অভিযুক্ত ওই যুবককে গ্রেপ্তার করে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে আক্রম আলি স্বীকার করেছে, “লোন পাওয়ার আশায় আমি ১২ হাজার টাকা দিয়েছি। আমি এখন ওই কাজ ছেড়ে দিয়েছি।” তবে যা করেছে তা ভুল হয়েছে বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করে আক্রম আলি।

[আরও পড়ুন: ‘পদ না পেলেও গুরুত্ব কমেনি রাহুলদার’, মুকুলের সুরেই সুর মেলালেন সায়ন্তন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement