BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘করোনা হলে প্রথমেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জড়িয়ে ধরব’, ফের বিতর্কিত মন্তব্য অনুপমের

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 27, 2020 8:46 pm|    Updated: September 28, 2020 2:30 pm

An Images

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: করোনা (Coronavirus) নিয়ে চিন্তিত তামাম বিশ্ববাসী। করোনা সংক্রমিত হওয়ার আগেই আতঙ্কে থরহরি কম্প দশা। কিন্তু সেভাবে চিন্তিত নন সদ্য নির্বাচিত বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক অনুপম হাজরা। ভাইরাস আক্রান্ত হলে কী করবেন, তা ইতিমধ্যেই স্থির করে ফেলেছেন তিনি। সেকথা জনসমক্ষে জানিয়েছেনও তিনি। আর তাঁর এই উত্তর নিয়ে এখন তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি। অনেকেই অনুপমের সমালোচনাও করেছেন।

কিন্তু ঠিক কী বলেছেন অনুপম হাজরা (Anupam Hazra)? রবিবার বারুইপুরে দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিতে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে বহু মানুষকেই মাস্ক ছাড়া দেখতে পাওয়া যায়। এমনকী খোদ অনুপম হাজরার মুখেও মাস্ক ছিল না। স্বাভাবিকভাবেই তাঁকে কোভিড বিধি না মানার বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়। সেই উত্তরে অনুপম বলেন, “আমার করোনা হলে ঠিক করে নিয়েছি প্রথমেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) জড়িয়ে ধরব।” তাঁর এই মন্তব্য নিয়েই বিভিন্ন মহলে উঠেছে সমালোচনার ঝড়। 

[আরও পড়ুন: ‘পদ না পেলেও গুরুত্ব কমেনি রাহুলদার’, মুকুলের সুরেই সুর মেলালেন সায়ন্তন]

এখানেই শেষ নয়, দলীয় কর্মীদের মাস্ক না পরার বিষয়েও সাফাই দেন তিনি। তাঁর দাবি, “গেরুয়া শিবিরের নেতা-কর্মীরা রাজ্যের সবচেয়ে বড় শত্রু তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে লড়াই করছে। তাই তার চেয়ে বেশি ক্ষতি কেউ করতে পারবে না।” এছাড়া করোনায় মৃতদের দেহ দাহের পদ্ধতি নিয়েও সুর চড়ান অনুপম। তিনি বলেন, ইঁদুর, বিড়ালও এখানে এভাবে দাহ করা হয় না যেভাবে করোনায় মৃতের দেহ পোড়ানো হয়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও কড়া ভাষায় বিঁধেছেন তিনি। নাম মমতা হলেও তিনি মমতাময়ী নন বলেই কটাক্ষ করেন অনুপম। 

এদিকে, এদিন অনুপম হাজরাকে সংবর্ধনা জানানোর পরই একটি বৈঠক শুরু হয়। আর সেই বৈঠককে ঘিরেই অশান্তির আগুন জ্বলে ওঠে। এই ঘটনায় বিজেপির মহিলা কর্মীদের মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। বিজেপির দাবি, স্বরূপ দত্ত একজন জেলা সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্য। কয়েকদিন আগেই তিনি নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি তৃণমূলের দুষ্কৃতীদের সঙ্গে নিয়ে এদিন বিজেপির দলীয় কার্যালয়ে ঢুকে অশান্তি শুরু করেন। এই সভা শুরুর আগে অনুপম হাজরার গাড়ি ঘিরেও বারুইপুর পূর্ব জেলা দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ দেখানো হয়। বিজেপির পূর্ব জেলা দলীয় কার্যালয়ের সভাপতি হরেকৃষ্ণ দত্তের অভিযোগ, যারা এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত তারা বিজেপির কেউ নন। তৃণমূলের একাংশ দুষ্কৃতীদের যোগসাজশেই এই ঘটনা ঘটেছে। এখানে পুরনো নতুনের কোনও বিবাদ নেই।

দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: পিকের থেকে টাকা নিয়ে দলবিরোধী কাজ! চাঞ্চল্যকর অভিযোগ বসিরহাটের বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement