BREAKING NEWS

২৮ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ার ‘শাস্তি’, কিশোরীকে এলোপাথাড়ি কোপ প্রতিবেশী যুবকের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: July 2, 2020 5:52 pm|    Updated: July 2, 2020 5:52 pm

An Images

শাহাজাদ হোসেন, ফরাক্কা: বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ‘শাস্তি’। নবম শ্রেণীর ছাত্রীকে এলোপাথাড়ি কোপাল প্রতিবেশী এক যুবক। বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের সুতির (Suti) সিধোরীতে। ঘটনার পর থেকেই পলাতক অভিযুক্ত যুবক। তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ির বারান্দায় বসে বিড়ি বাঁধছিল ওই কিশোরী। সেই সময় প্রতিবেশী যুবক নুর মহম্মদ তাদের বাড়িতে আসে। দু-এক কথার পরই কিশোরীকে বিয়ের প্রস্তাব দেয় সে। কিন্তু ওই প্রস্তাবে রাজি হয়নি কিশোরী। এতেই ক্ষোভে ফুঁসতে শুরু করে অভিযুক্ত নুর মহম্মদ। আচমকা ছুরি নিয়ে চড়াও হয় কিশোরীর উপর। আক্রান্ত কিশোরীর চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে যেতেই চম্পট দেয় নুর মহম্মদ। এরপর স্থানীয়রাই তড়িঘড়ি কিশোরীকে জঙ্গিপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়। বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসা চলছে তাঁর।

suicide

[আরও পড়ুন: মালদহে টোটো বিস্ফোরণের ঘটনায় বাড়ছে রহস্য, NIA তদন্তের দাবি সাংসদের, ঘটনাস্থলে STF]

আক্রান্তের কথায়, “নুর মহম্মদ বেশ কিছুদিন ধরেই আমাকে বিরক্ত করত। বিয়ের প্রস্তাবও দেয় একাধিকবার। বারবার আপত্তি করা সত্ত্বেও জোর করতে থাকে। ওর অত্যাচারেই আমার বাড়ির লোক অন্যত্র বিয়ের ব্যবস্থা শুরু করেছিল। আজ আমি ঘরে একা ছিলাম। তখন ফের নুর বিয়ের প্রস্তাব দেয়, এবারও আমি নাকচ করি। তখনই সে ছুরি নিয়ে হামলা চালায় আমার উপর।” সূত্রের খবর, এই ঘটনায় অভিযুক্তের বিরুদ্ধে সুতি থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তবে এখনও হদিশ মেলেনি ‘গুণধরের’।

[আরও পড়ুন: বন্ধুর ফোন পেয়ে রাতে বাড়ি থেকে বেরনোই কাল, সকালে পুকুরে মিলল কিশোরীর দেহ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement