২১ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৬ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

বন্ধুর ফোন পেয়ে রাতে বাড়ি থেকে বেরনোই কাল, সকালে পুকুরে মিলল কিশোরীর দেহ

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: July 2, 2020 3:01 pm|    Updated: July 2, 2020 3:18 pm

An Images

অরিজিত গুপ্ত, হাওড়া: বুধবার রাত ১১ টা নাগাদ বন্ধুর ফোন পেয়ে ঘর থেকে বেরিয়েছিল বছর ১৪-এর কিশোরী। বৃহস্পতিবার সকালে এলাকার পুকুর থেকে উদ্ধার হল তার দেহ। ইতিমধ্যেই দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ। বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে পরিকল্পনামাফিকই খুন করা হয়েছে কিশোরীকে, অভিযোগ মৃতার পরিবারের সদস্যদের। ঠিক কী হয়েছিল গতকাল রাতে? তা জানতে তদন্ত শুরু করেছে বি গার্ডেন থানার পুলিশ।

জানা গিয়েছে, হাওড়ার দক্ষিণ বাকসারা এলাকার বাসিন্দা ওই কিশোরীর নাম প্রিয়শ্রী ঘোষ। দশম শ্রেণির পড়ুয়া সে। বুধবার সন্ধেয় দীর্ঘক্ষণ বন্ধুদের সঙ্গে বাড়ির বাইরেই ছিল ওই নাবালিকা। আড্ডা-খাওয়াদাওয়া সেরে রাত ৮ টার পর বাড়ি ফেরে সে। সোজা চলে যায় দোতলায় নিজের ঘরে। এরপর রাত ১১ টা নাগাদ এক বন্ধু ফোন করে তাকে। তার সঙ্গে বলার পরই ফের বাড়ি থেকে বের হয় ওই কিশোরী। পরে বৃহস্পতিবার এলাকার একটি পুকুরে প্রিয়শ্রীর দেহ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। খবর দেওয়া হলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়।

[আরও পড়ুন: সম্পর্কের ভাঙনের জেরে অবসাদ, কলকাতার শ্যামপুকুরে আত্মঘাতী দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র]

পরিবারের সদস্যদের কথায়, রাত ১১ টা নাগাদ ওই নাবালিকার ফোন এসেছিল, তা টের পেয়েছিলেন তাঁরা। কিন্তু প্রিয়শ্রী যে ঘর থেকে বেরিয়েছে, ঘুণাক্ষরেও তা বোঝেননি কেউ। অনুমান, রাতে পাঁচিল টপকে বেরিয়েছিল প্রিয়শ্রী। কিন্তু কোন বন্ধুর ফোন পেয়ে বেরিয়েছিল সে? তবে কি খুনের উদ্দেশেই ডাকা হয়েছিল প্রিয়শ্রীকে? নাকি ডেকে নিয়ে যাওয়ার পর বচসার কারণে খুন? এখন এই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে তদন্তকারীদের মনে। প্রসঙ্গত, ঘটনার সঙ্গে মৃতার ২ বন্ধুর যোগ থাকতে পারে বলে অনুমান পরিবারের।

[আরও পড়ুন: ক্ষতিপূরণের ফর্ম জমা দিতে বিডিও অফিসে হুড়োহুড়ি, চাপে কুলতলিতে পদপিষ্ট হয়ে জখম বহু]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement