২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

শিকেয় লকডাউন, ডায়মন্ড হারবারে অবাধে চলল বাড়ির ছাদ ঢালাইয়ের কাজ

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: May 10, 2020 5:24 pm|    Updated: May 10, 2020 7:39 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনের মধ্যেই ডায়মন্ড হারবারে (Diamond Harbour) বাড়ির নির্মাণ কাজ চালিয়ে দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয় দিলেন এক ব্যক্তি। মাস্ক না পরেই তার বাড়ির নির্মাণ কাজে ব্যস্ত শ্রমিকরা। স্থানীয়দের প্রতিবাদে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ ও কাউন্সিলর। তাঁদের হস্তক্ষেপেই বন্ধ হয় সেই কাজ।

লকডাউনের আবহেই ডায়মন্ড হারবারের নাইয়াপাড়ায় ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে চলছে নির্মাণ কাজ। না কোনও রাস্তার নয়। পুলকেশ মাইতি নামে এক ব্যক্তি বাড়ির ছাদ ঢালাইয়ের কাজ সারছেন এই সময়। করোনা সংক্রমণের আবহে প্রায় ২ মাসের উপরে বন্ধ যাবতীয় কাজ। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে, কল-কারখানা, গণপরিবহন সবই শিকেয় উঠেছে। লকডাউনের জেরে উক্ত ব্যক্তিও বাড়িতেই বসে। ফলে হাতে এখন বিস্তর সময়। তাই লকডাউনের মধ্যেই বাড়ির ছাদ ঢালাই করা বিশেষ প্রয়োজন বলে সিদ্ধান্ত নেন তিনি। যেমন ভাবা তেমন কাজ। অপেক্ষা শব্দটিকে তাই জীবন থেকে বাতিল করে প্রায় ১০-১২ জন নির্মাণ কাজের শ্রমিকদের দিয়ে শুরু করলেন বাড়ির ছাদ ঢালাই। স্থানীয়দের অভিযোগ, “নির্মাণ কাজের শ্রমিকদের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার কোনও বালাই নেই। তাঁরা দিব্য একসঙ্গে দাঁড়িয়ে গল্প করছেন, কাজ করছেন। এমনকি তাঁদের কারোর মুখে কোনও মাস্ক নেই।” এক স্থানীয়ের কথায়, “পুলকেশ মাইতির বাড়িতে কাজ হচ্ছে দেখে প্রথমে অবাক হই। বিগত ৭-৮ দিন আগে আমাদের পাশের পাড়ায় এক করোনা আক্রান্তকে চিহ্নিত করা হয়। তারপর থেকেই এই পাড়ায় প্রবেশ ও বাহির পথ বাঁশ দিয়ে বন্ধ করে দেয় স্থানীয় প্রশাসন। সেই সময়েও কী করে পুলকেশ বাবু বাড়ির মিস্ত্রিদের এনে ছাদ ঢালাই করছেন জানি না।” এমনকি সিমেন্ট মিক্সচার মেশিনও আনা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন নাইয়াপাড়ার স্থানীয়রা। তবে স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর রাজর্শী দাসকে অভিযোগ জানালে তাঁর মতে, “আমি এই নির্মাণ কাজের অনুমতি দিইনি। জানি না কী করে করছেন।”

[আরও পড়ুন:‘ত্রাণ দেয়নি তৃণমূল, পাশে দাঁড়িয়েছে সিপিএম’, সাংসদ দেবের ভাইয়ের অভিযোগে বিতর্কের ঝড়]

স্থানীয়দের উদ্যোগেই পরে ডায়মন্ড হারবার থানায় অভিযোগ জানানো হয় পুলকেশ মাইতির নামে। পরে পুলিশ ও স্থানীয় কাউন্সিলর ঘটনাস্থলে যান। অবিলম্বে পুলকেশ মাইতিকে বাড়ির নির্মাণ কাজ বন্ধ করার নির্দেশ দেন। লকডাউনের আবহে দায়িত্বজ্ঞানহীনের মত আচরণের জন্য তাঁকে তীরষ্কার করে বলেও জানা যায়।

[আরও পড়ুন:লকডাউনের ভবিষ্যৎ কী? স্থির করতে সোমবার মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক মোদির]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement