২ শ্রাবণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রাজা দাস, বালুরঘাট: কলকাতার এনআরএস হাসপাতলে চিকিৎসক নিগ্রহের ঘটনাকে কেন্দ্র করে একদিকে যখন উত্তপ্ত রাজ্য তথা জাতীয় স্বাস্থ্যমহল৷ চিকিৎসকদের নিরাপত্তার দাবিতে সরব সবপক্ষ৷ তখন আবারও একই ধরনের ঘটনার সাক্ষী থাকল দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাট৷ তবে এবার সরাসরি চিকিৎসক নয়, রোগীর পরিজনদের নিগ্রহের মুখে পড়লেন বালুরঘাট সদর হাসপাতালের এক টেকনিশিয়ান৷ ফলে পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলেও, এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শনিবার রাত থেকে আবারও কর্মবিরতির হুঁশিয়ারি দিলেন হাসপাতালের চিকিৎসক ও অন্যান্য কর্মীরা৷

[ আরও পড়ুন: ২ দিনের মধ্যে রাজ্যে ঢুকছে বর্ষা, ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা উত্তরবঙ্গে]

জানা গিয়েছে, শনিবার রাত সাড়ে দশটা নাগাদ বালুরঘাটের রঘুনাথপুর ফরেস্ট রোড এলাকায় বাইক দুর্ঘটনায় গুরুতর জখম হন বুবাই দাস নামের এক যুবক৷ তাঁর মাথায় আঘাত লাগে। দ্রুত তাঁকে বালুরঘাট সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়৷ জরুরি বিভাগের চিকিৎসকদের পরামর্শে তার সিটি স্ক্যান করানো হয়৷ হাসপাতাল সূত্রে খবর, ওই সময় সিটি স্ক্যান বিভাগের টেকনিশিয়ান সজল পান্ডা রোগীর পরিজনদের কাছে জানতে চান, কীভাবে এই ঘটনা ঘটেছে? দুর্ঘটনা নাকি মারধরের ফলে বুবাই দাস জখম হয়েছেন৷ অভিযোগ, আচমকাই টেকনিশিয়ান সজল পান্ডার সঙ্গে অভব্য আচরণ করতে শুরু করেন রোগীর পরিজনরা৷ তাঁকে হুমকি দেওয়া হয়৷ ধাক্কা দেওয়া হয়৷ এরপর হঠাৎই তাঁর উপর চড়াও হয় রোগীর পরিজনরা৷ তাঁকে বেধড়ক মারধর করা হয়৷

[ আরও পড়ুন: তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে কল্যাণীতে চলল গুলি-বোমা, গুরুতর জখম ১ ]

একটা সময় পর ঘটনা অন্যদিকে মোড় নেয়৷ পুলিশের বিরুদ্ধে সরব হন বালুরঘাট হাসপাতালের চিকিৎসক থেকে শুরু করে হাসপাতালের কর্মীরা৷ কর্মক্ষেত্রে নিরাপত্তার দাবিতে সরব হন তাঁরা৷ শনিবার রাতেই সাংবাদিক বৈঠক করে ওই ঘটনার প্রতিবাদ করেন চিকিৎসক সংগঠনের (আইএমএ) প্রতিনিধি জ্ঞানপ্রকাশ মুখোপাধ্যায়৷ জানান, ‘‘এনআরএস হাসপাতালের নিগ্রহের ঘটনার পরেও বালুরঘাট সদর হাসপাতালে চিকিৎসা পরিষেবা স্বাভাবিক রেখেছিলাম আমরা। কিন্তু তারপরেও এই ধরনের ঘটনা ঘটলে আগামিদিনে কর্মবিরতির পথে হাঁটতে বাধ্য হব আমরা।’’

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং