BREAKING NEWS

২১ আষাঢ়  ১৪২৭  সোমবার ৬ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

তৃণমূল নেতাকে এলোপাথাড়ি কোপ বিজেপি সমর্থকের, উত্তপ্ত গাইঘাটা

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: July 1, 2020 3:48 pm|    Updated: July 1, 2020 3:50 pm

An Images

জ্যোতি চক্রবর্তী, বনগাঁ: ধারালো অস্ত্র দিয়ে তৃণমূলের (TMC) অঞ্চল সভাপতিকে কোপানোর অভিযোগ উঠল বিজেপি (BJP) সমর্থকের বিরুদ্ধে। বুধবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার গাইঘাটা (Gaighata) এলাকায়। ইতিমধ্যেই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুধুমাত্র রাজনৈতিক মতানৈক্যের কারণেই এই আক্রমণ, নাকি পিছনে লুকিয়ে অন্য রহস্য, তা জানতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, গাইঘাটার ইছাপুর ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি কার্তিক ঘোষ বুধবার সকালে প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়েছিলেন। সেই সময় আমকোলা এলাকায় শৈলেন ঘোষ নামে এক ব্যক্তি আচমকা ধারালো অস্ত্র নিয়ে কার্তিক বাবুর উপর চড়াও হয়। এলোপাথাড়ি ওই তৃণমূল নেতাকে কোপাতে শুরু করে সে। তৃণমূল নেতার মাথায় কোপ মারার চেষ্টা করতেই তিনি অভিযুক্তের হাত থেকে অস্ত্রটি কেড়ে নেন। এরপরই গোটা বিষয়টি জানিয়ে পুলিশে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ওই ব্যক্তি। গ্রেপ্তার করা হয় অভিযুক্তকে। আজই আদালতে তোলা হবে ধৃতকে।

[আরও পড়ুন: ‘২০২১ পর্যন্ত সরকারই থাকবে না’, ফ্রি রেশন ইস্যুতে মমতাকে তোপ দিলীপের]

জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত শৈলেন ঘোষ বিজেপি সমর্থক হিসেবে পরিচিত। সে একাধিক অপরাধমূলক কাজের সঙ্গেও জড়িত বলে দাবি তৃণমূলের। এদিনের ঘটনায় ক্ষোভে ফুঁসতে শুরু করেছে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। অভিযুক্তের কঠোরতম শাস্তি দাবি জানিয়েছেন তাঁরা। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে যে, অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কী কারণে এই হামলা তা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। ঘটনার পিছনে অন্য কারও ইন্ধন রয়েছে কি না সেই বিষয়টিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: শুশ্রূষার নামে টাকা হাতানোর অভিযোগ, বারুইপুরে বিদ্যুতের খুঁটিতে বেঁধে বেধড়ক মার ভুয়ো চিকিৎসককে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement