BREAKING NEWS

২৭ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

শুশ্রূষার নামে টাকা হাতানোর অভিযোগ, বারুইপুরে বিদ্যুতের খুঁটিতে বেঁধে বেধড়ক মার ভুয়ো চিকিৎসককে

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: July 1, 2020 12:59 pm|    Updated: July 1, 2020 1:32 pm

An Images

ছবিটি প্রতীকী

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: অসহায় মানুষের অসুস্থতার সুযোগ নিয়ে টাকা হাতানোর অভিযোগ উঠল এক ভুয়ো চিকিৎসকের (Fake Doctor) বিরুদ্ধে। জালিয়াতি বুঝে ফেলার পরই ওই ব্যক্তিকে বিদ্যুতের খুঁটিতে বেঁধে ও রাস্তায় ফেলে বেধড়ক মারধর করে স্থানীয়রা। পরে তাকে তুলে দেওয়া হয় পুলিশের হাতে। বুধবারই আদালতে তোলা হবে অভিযুক্তকে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগণার বারুইপুর (Baruipur) থানার টংতলা এলাকায়।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্ত যুবকের বাড়ি মুর্শিদাবাদের বহরমপুরে। নিজেকে কলকাতার একটি নামকরা হাসপাতালের চিকিৎসক হিসেবে পরিচয় দিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই বারুইপুরে ডাক্তারি করত সে। প্রতারিত এক বধূর অভিযোগ, দীর্ঘ কয়েক মাস ধরে তার অসুস্থ শ্বশুরের চিকিৎসা বাবদ তাঁদের থেকে মোটা অঙ্কের টাকা হাতায় সৌরভ। স্থানীয় বেশ কয়েকটি গ্রামে বাসিন্দাদের থেকেও এভাবেই টাকা হাতিয়েছিল ওই যুবক। তবে পরবর্তীতে স্থানীয়রা বিষয়টি বুঝতে পেরে বারুইপুর থানায় অভিযোগ।

[আরও পড়ুন: রামপুরহাটে বিস্ফোরক বোঝাই ট্রাক্টর আটক করল পুলিশ, চালক-সহ পলাতক ৩]

এরই মাঝে এদিন টাকা ফেরতের দাবিতে অভিযুক্ত সৌরভকে চেপে ধরে  স্থানীয়রা। বিদ্যুতের খুঁটিতে তাকে বেঁধে রেখে চলে মারধর। খবর যায় বারুইপুর থানায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে তাঁদের সামনেও চলে হামলা। এরপরই গ্রেপ্তার করা হয় অভিযুক্তকে। যদিও ধৃত সৌরভের দাবি, সে নির্দোষ, তাকে ফাঁসানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে রেকর্ড হারে বাড়ল সংক্রমণ, কলকাতাতেই একদিনে করোনা আক্রান্ত ২৩১ জন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement