২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

চোর সন্দেহে ভাঙড়ের দম্পতিকে বেধড়ক মার, গণপিটুনিতে মৃত্যু বধূর

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: October 17, 2020 10:14 am|    Updated: October 17, 2020 10:14 am

An Images

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: চোর সন্দেহে গণপিটুনিতে ফের মৃত্যুর ঘটনা ঘটল বাংলায়। এবার প্রাণ গেল দক্ষিণ ২৪ পরগনার (South 24 Parganas) ভাঙড়ের চিনেপুরের বাসিন্দা এক বধূর। ওই মহিলার মৃত্যুর পর খবর এলাকায় চাউর হতেই উত্তেজনা ছড়ায়। পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে ঘটনাস্থলে যায় কাশীপুর থানার পুলিশ। এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত-সহ চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ঘটনার সূত্রপাত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে।স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে, ওইদিন ভাঙড়ের কাশীপুর থানা এলাকার চিনেপুকুর গ্রামের গ‍্যাসের ব্যবসায়ী মহিবুল মোল্লার বাড়ি থেকে প্রায় দুই লক্ষ‍ টাকা চুরি যায়।
কোনওকারণে ওই ব্যবসায়ীর ধারণা হয়, এই ঘটনার সঙ্গে পাশের গ্রামের আলি মোল্লার যোগ রয়েছে। স্রেফ সন্দেহের বশে দলবল নিয়ে মহিবুল চড়াও হয় আলির বাড়িতে। অভিযোগ, চোর সন্দেহে বাড়ি থেকে তুলে
নিয়ে গিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয় আলিকে। রেহাই পাননি তাঁর স্ত্রী সুফিয়া বিবিও। তাঁকেও তুলে নিয়ে গিয়ে বেধড়ক মারধর করে মহিবুল ও তার দলবল। গণপিটুনির জেরে রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়েন সুফিয়া। তড়িঘড়ি স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে ভরতি করে।

[আরও পড়ুন: নিখোঁজ করোনা রোগীর দেহ মিলল পুকুরে, ক্ষোভে হাসপাতালে তাণ্ডব মৃতের পরিবারের]

চিকিৎসা শুরুর পর শুক্রবার গভীর রাতে মৃত্যু হয় সুফিয়ার। এই খবর এলাকায় পৌঁছতেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন স্থানীয়রা। পুলিশ নিয়ন্ত্রণে আনে পরিস্থিতি। ঘটনার পর দীর্ঘক্ষণ পেরিয়ে গেলেও এখনও থমথমে এলাকা। কিন্তু কেন আলিকেই সন্দেহ করল মহিবুল? তবে কি পুরনো শত্রুতার কারণেই এই ঘটনা? না কি লুকিয়ে অন্যরহস্য, তা জানার চেষ্টা করছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: ‘দেখুন বউকে মারছি, কেমন লাগছে বন্ধুরা?’ তৃণমূল নেতা ‘গামা পালোয়ানে’র পোস্টে নিন্দার ঝড়]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement