BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

শাসকদলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে ভরসন্ধেয় যুবককে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ, রণক্ষেত্র বর্ধমান

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: June 10, 2020 9:50 pm|    Updated: June 10, 2020 9:57 pm

An Images

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: শাসকদলের গোষ্ঠীকোন্দলের জেরে এক যুবককে পিটিয়ে খুনের ঘটনায় বুধবার রাতে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়াল বর্ধমানের লক্ষ্মীপুর মাঠ এলাকায়। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে এলাকার এক তৃণমূল নেতার বাড়িতে চলে হামলা। বেধড়ক মারধর করা হয় তৃণমূল নেতাকে। গুরুতর জখম অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি।

জানা গিয়েছে,  এদিন রাতে মোটরবাইক নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন গৌতম দাস নামে বছর ২৫-এর ওই যুবক। জিটি রোডে ও বাদশাহী রোডের মাঝে কয়েকজন তাঁর পথ আটকায়। সেখানেই বচসায় জড়িয়ে পড়ে তাঁরা। অভিযোগ, তখনই গৌতমকে ব্যাপক মারধর করা হয়। অচৈতন্য অবস্থায় রাস্তায় লুটিয়ে পড়ে তিনি। এরপরই তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন। এই ঘটনার জেরেই ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি হয় এলাকায়। যুবককে খুনের ঘটনায় এলাকারই এক তৃণমূল নেতা বিকাশ মণ্ডলের অনুগামীরা জড়িত বলে অভিযোগ তোলে দলেরই একাংশ। ক্ষোভের বশে বিকাশবাবুর বাড়িতে চড়াও হয় উত্তেজিত জনতা। ব্যাপক ভাঙচুর করা হয়। বেধড়ক মারধর করা হয় বিকাশবাবুকে। রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভরতি করা হয় তাঁকে।

burdwan

[আরও পড়ুন: পর্যটকদের জন্য সুখবর, সুন্দরবন ভ্রমণের ছাড়পত্র দিল বনদপ্তর]

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় বর্ধমান থানার বিশাল পুলিশবাহিনী। থানার আইসি পিন্টু সাহা, ডিএসপি (সদর) শৌভিক পাত্র-সহ পদস্থ পুলিশ কর্তাদের উপস্থিতিতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু গৌতমকে কেন খুন করা হল? পুরনো কোনও বিবাদ? নাকি অন্য কোনও কারণ রয়েছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন এক পুলিশকর্তা। উত্তেজনা থাকায় এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ। প্রসঙ্গত, ওই এলাকায় শাসকদলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব দীর্ঘদিনের। 

ছবি: মুকুলেসুর রহমান

[আরও পড়ুন: করোনার দাপট অব্যাহত, ফের ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে অনেকটাই বাড়ল মৃতের সংখ্যা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement