৩০ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: ভোটের ফলপ্রকাশের পরই দিনে দুপুরে গুলি চলল পুরুলিয়ায়। বাইক থামিয়ে এক যুবককে লক্ষ্য করে গুলি চালায় ১ যুবক।  গুলি লাগে আক্রান্তের পায়ে। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় ওই যুবক স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। কী কারণে গুলি, তা নিয়ে ধন্দে পুলিশ। তবে এর সঙ্গে রাজনৈতিক অশান্তির কোনও যোগ নেই বলে প্রায় নিশ্চিত পুলিশ৷ 

[আরও পড়ুনদিঘার সমুদ্রে তলিয়ে মৃত্যু মদ্যপ পর্যটকের, অল্পের জন্য রক্ষা শিশুকন্যার]

আহত যুবকের নাম মহম্মদ ফিরোজ। পুরুলিয়ার আদ্রার বেনিয়াশোলের বাসিন্দা ওই যুবক। তবে দীর্ঘদিন ধরেই কর্মসূত্রে দিল্লিতে থাকতেন তিনি।  কয়েকদিন আগে পুরুলিয়ায় নিজের বাড়িতে ফেরেন। জানা গিয়েছে, শুক্রবার সকালে বন্ধুর বাইকে চেপে নমাজ পড়তে যাচ্ছিলেন মহম্মদ। সেই সময় সরাকবাঁধ এলাকায় ফিরোজের পথ আটকায় উলটো দিক থেকে আসা একটি বাইক। অভিযোগ, সেই বাইকের এক আরোহী ফিরোজকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। গুলিটি লাগে তাঁর পায়ে। ঘটনায় প্রাথমিক আকস্মিকতা কাটিয়ে ফিরোজের সঙ্গী তড়িঘড়ি তাঁকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যায়৷

[আরও পড়ুন: বাংলার কোথাও দ্বিতীয়ও নয় বামেরা, জামানত খোয়ালেন ৪০ প্রার্থী]

ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে আদ্রা থানার পুলিশ। তবে খুনের চেষ্টার কারণ নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। ব্যক্তিগত শত্রুতা, নাকি ব্যবসায়িক কোনও অশান্তির জেরে এই ঘটনা কি না, তা নিয়ে সংশয়ে পুলিশ। আক্রান্ত ব্যক্তি মহম্মদ ফিরোজ রঘুনাথপুর ১ নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির তৃণমূলের সদস্য ডি মনোজের শ্যালক। যদিও ঘটনার পিছনে রাজনৈতিক কোনও কারণ নেই বলেই মনে করছে সকলে। এ প্রসঙ্গে ডি মনোজ জানান,  “কেন এই ঘটনা বুঝতে পারছি না। তবে রাজনৈতিক কারণে এই ঘটনা নয় বলেই মনে হচ্ছে।” পুরুলিয়ার পুলিশ সুপার আকাশ মাঘারিয়া বলেন, “খুনের উদ্দেশ্য থাকলে পায়ে গুলি করার কথা নয়। বাইকে বসে থাকাকালীন কাউকে খুনের উদ্দেশ্যে যদি মাথা বা বুক লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়, তা লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে পায়ে লাগাও কার্যত অসম্ভব।” সবমিলিয়ে এই হামলার কারণ এখনও ধোঁয়াশা পুলিশের কাছে। কেউ এখনও পর্যন্ত গ্রেপ্তার হয়নি৷ ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে৷ দ্রুত সবটা স্পষ্ট হবে বলে আশাবাদী পুলিশ সুপার

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং