৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

শ্রীকান্ত প্রাত্র, ঘাটাল: টিউশন সেরে ফেরার পথে অ্যাসিড হামলার শিকার নবম শ্রেণির ছাত্রী। আক্রান্তের নাম অর্পিতা দলুই। সোমবার সন্ধেয় মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুরের রাজপুরের সুপা গ্রামে। আহত অবস্থায় বর্তমানে ওই ছাত্রী মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। কিন্তু কী কারণে হামলা করা হল ওই কিশোরীর উপর, সে বিষয়ে এখনও কিছু জানা যায়নি। ইতিমধ্যেই অভিযুক্তদের খোঁজে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন:দিনভর টানাপোড়েন, ২২টি কনভয়ে গভীর রাতে নানুর পৌঁছল বিজেপি কর্মীর দেহ]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, আদতে পূর্ব মেদিনীপুরের চন্দ্রকোনায় বাড়ি অর্পিতা দলুই নামে ওই কিশোরীর। কিন্তু পড়াশোনার কারণে দীর্ঘদিন ধরে রাজপুরের সুপা গ্রামে মামাবাড়িতে থাকত। সুপা উচ্চবালিকা বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণিতে পড়ত সে। অন্যান্যদিনের মতোই সোমবার সন্ধেয় টিউশন পড়তে গিয়েছিল অর্পিতা। অভিযোগ, সাড়ে আটটা নাগাদ বাড়ি ফেরার সময় আচমকা কয়েকজন যুবক অর্পিতাকে লক্ষ্য করে অ্যাসিড ছোঁড়ে। অ্যাসিডের তীব্রতায় ঝলসে যায় তার মুখ। যন্ত্রনায় আর্তনাদ করতে শুরু করে। এরপর স্থানীয়রাই রাস্তায় তাকে ছটফট করতে দেখে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যায়।

বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন ওই কিশোরী। হাসপাতাল সূত্রে খবর, বেশ অনেকটাই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে অর্পিতার মুখ। সুস্থ হতে অনেকটাই সময় লাগবে।  খবর পেয়েই হাসপাতালে পৌঁছয় দাসপুর থানার পুলিশ। ইতিমধ্যেই অভিযুক্তদের খোঁজে শুরু হয়েছে তদন্ত। কিন্তু কী কারণে ওই যুবকেরা আক্রমণ করল অর্পিতাকে তা এখনও জানা যায়নি। তবে ঘটনার পিছনে কোনও প্রেমঘটিত সমস্যা ছিল নাকি অন্য কিছু তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। তদন্তের স্বার্থে অর্পিতার মামাবাড়ির সদস্য, প্রতিবেশী ও বন্ধুদের সঙ্গেও কথা বলছে তদন্তকারীরা। সুস্থ হলে অর্পিতার সঙ্গেও কথা বলা হবে জানানো হয়েছে পুলিশের তরফে। আহত পড়ুয়ার পরিবারের দাবি, অবিলম্বে গ্রেপ্তার করতে হবে অভিযুক্তদের। 

[আরও পড়ুন: মুর্শিদাবাদের নওদায় পার্টি অফিসেই দুষ্কৃতীদের গুলিতে খুন তৃণমূল নেতা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং