BREAKING NEWS

১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

স্কুল খোলা নিয়ে অনিশ্চয়তা থাকলেও থেমে নেই কাজ, আগামী সপ্তাহ থেকেই শুরু হচ্ছে ভরতি

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: November 27, 2020 6:40 pm|    Updated: November 27, 2020 6:43 pm

Admission in schools will open from the next week, school education department issues notice| Sangbad Pratidin

দীপঙ্কর মণ্ডল: করোনা (Coronavirus) সতর্কতায় দীর্ঘ আট মাস ধরে বন্ধ স্কুলের পঠনপাঠন। কবে সব স্বাভাবিক হবে, এখনও তা অনিশ্চিত। সরকারি নির্দেশিকা অনুযায়ী, ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত বন্ধ রাজ্যের সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। তারপর স্কুল (School) খোলা না হলেও শুরু হয়ে যাচ্ছে ভরতি প্রক্রিয়া। স্কুলশিক্ষা দপ্তরের তরফে শুক্রবার বিজ্ঞপ্তি জারি করে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে –

  • ডিসেম্বরের শুরুতেই আগামী শিক্ষাবর্ষে প্রাক-প্রাথমিক থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত স্কুলে ভরতি শুরু করতে হবে।
  • নির্দেশিকা অনুযায়ী, ২ থেকে ৯ ডিসেম্বর ভরতির ফর্ম দেওয়া হবে।
  • ১১ থেকে ১৬ তারিখের মধ্যে হবে লটারি।
  • ওই মাসের ১৮ থেকে ২৩ তারিখের মধ্যে ভরতি প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে।

শিক্ষার অধিকার আইন মেনে প্রাক-প্রাথমিক থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত ভরতিতে প্রবেশিকা পরীক্ষা হবে না। পড়ুয়া বা অভিভাবকদের ইন্টারভিউ নিতে পারবে না কোনও স্কুল। স্কুল শিক্ষা দপ্তর (School Education Department) স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, ভরতি হবে পুরোপুরি লটারির মাধ্যমে। উল্লেখ্য, করোনা আবহে স্কুল দীর্ঘদিন বন্ধ থাকায় অভিভাবকরা ভরতি নিয়ে প্রবল দুশ্চিন্তায় ছিলেন। সরকারি বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি-সহ বিভিন্ন শিক্ষক সংগঠন দ্রুত ভরতির নির্দেশিকা প্রকাশের দাবি জানিয়েছিল। স্কুলশিক্ষা দপ্তর এদিন রাজ্যের সমস্ত সরকারি, সরকার অনুমোদিত, সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত ও মডেল স্কুলে ভরতির নির্দেশিকা জারি করেছে। সমিতির সাধারণ সম্পাদক সৌগত বসু জানিয়েছেন, “প্রাক-প্রাথমিক থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত লটারির মাধ্যমে ভর্তির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করার জন্য এবং কোভিড অতিমারি পরিস্থিতিতে ভর্তির সুস্পষ্ট নির্দেশিকা জানানোর জন্য শিক্ষা দপ্তরকে ধন্যবাদ জানাই।”

[আরও পড়ুন: ‘তৃণমূলের শেষের শুরু’, শুভেন্দু অধিকারীর মন্ত্রিত্ব ত্যাগ নিয়ে মন্তব্য দিলীপের]

চলতি বছরের মার্চে দেশজুড়ে করোনা থাবা বসায়। নিরাপত্তার কারণে বন্ধ করে দেওয়া হয় সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। করোনা সতর্কতায় এবছর উচ্চমাধ্যমিকের সব পরীক্ষা নিতে পারেনি রাজ্য সরকার। তার জন্য ২০২১ সালে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকের সিলেবাসে অনেকটা কাটছাঁট করা হয়েছে। করোনার দাপট এখনও কমেনি। স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে এখনও পঠনপাঠন বন্ধ। স্নাতক স্তরের চূড়ান্ত পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে বাড়িতে বসে। ফলে পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা কীভাবে হবে, তা নিয়ে প্রবল দুশ্চিন্তায় ছিল পরীক্ষার্থীরা। পাশাপাশি ভরতি কবে শুরু হবে, তা নিয়েও প্রবল দুশ্চিন্তায় ছিলেন অভিভাবকরা।

[আরও পড়ুন: ধর্ষণ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য, অগ্নিমিত্রা পলের বিরুদ্ধে তমলুক থানায় অভিযোগ দায়ের]

দুটি উদ্বেগেরই নিরসন করল রাজ্য সরকার। আগামী বছর এ রাজ্যে মার্চ-এপ্রিল নাগাদ বিধানসভা নির্বাচন হতে পারে। স্কুলশিক্ষা দপ্তরের একটি সূত্র জানিয়েছে, ভোট পর্ব মিটলে জুন মাস নাগাদ মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা নেওয়া হবে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে