৪ শ্রাবণ  ১৪২৬  শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

নিজস্ব সংবাদদাতা, বনগাঁ: এক মহিলার জরায়ুর ভিতরে আট সপ্তাহের ভ্রূণ। কিন্তু জরায়ুর বাইরে রয়েছে একটি টিউমার। রোগিনীর ডিম্বাশয়ও জায়গা বদল করে রয়েছে। সেদিন মায়ের জরায়ুকে সরিয়ে ভ্রূণকে রক্ষা করাই ছিল চিকিৎসকদের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ। মহকুমা হাসপাতালে বিরল অস্ত্রোপচারে মেলে সাফল্য। আট মাস বাদে ফের অস্ত্রোপচারে সুস্থ কন্যাসন্তানের জন্ম দিলেন সেই প্রসূতি।

[ আরও পড়ুন: শ্বশুরবাড়ি থেকে ফেরার পথে নিখোঁজ যুবক, পরেরদিন দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য]

৬ মে বনগাঁ মহকুমা হাসপাতালে অস্ত্রোপচার করলেন চিকিৎসক মহিতোষ মণ্ডল। মঙ্গলবার সকালে সুস্থ কন্যাসন্তানকে নিয়ে বাড়ি ফিরল পরিবার। খবর ছড়িয়ে পড়তেই খুশির হাওয়া মহকুমা হাসপাতাল জুড়ে। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, গত বছর ২৪ সেপ্টেম্বর গাইঘাটা থানার কুলঝুটি গ্রামের গৃহবধূ রূপালিদেবী পেটে যন্ত্রণা নিয়ে বনগাঁ মহকুমা হাসপাতালে ভরতি হন। দ্রুত পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে চিকিৎসক মহিতোষ মণ্ডল দেখেন, ওই গৃহবধূর জরায়ুর মধ্যে একটি বড় টিউমার এবং আট সপ্তাহের ভ্রূণ রয়েছে। প্রসূতির ডিম্বাশয়টির অবস্থান বদলে যাওয়ায় আরও জটিল হয়েছিল পরিস্থিতি হয়েছে। জরায়ু কেটে বাদ দেওয়া মানে ওই ভ্রূণটির মৃত্যু হবে। সেই কারণে সন্তানকে সুরক্ষিত রেখে সফল  অস্ত্রোপচার করাটাই সেদিন ওই চিকিৎসকের কাছে ছিল বড় চ্যালেঞ্জ। ওইদিন রাতেই অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি।

[ আরও পড়ুন: নামী ব্র্যান্ডের মোড়কে নকল চাল বিক্রি, রায়নায় পুলিশের জালে অবৈধ চক্র]

সব প্রতিকূলতা কাটিয়ে শেষ পর্যন্ত বিস্ময় ঘটিয়ে ফেলেছিলেন বনগাঁ মহকুমা হাসপাতালের চিকিৎসকরা। এক ঘণ্টার রুদ্ধশ্বাস অস্ত্রোপচারের পরে সাফল্য পান তাঁরা। এরপর থেকে শুরু হয় সন্তানকে ভূমিষ্ঠ করার লড়াই। বিরল অস্ত্রোপচারের পর একটি ফুটফুটে কন্যাসন্তানের জন্ম দেন তিনি৷ সদ্যোজাতকে ঘিরে এখন পরিবারে খুশির রেশ৷ 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং