BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

পরিযায়ীদের বঞ্চিত করে রাস্তার কাজে মেশিন ব্যবহার, শ্রমিক বিক্ষোভে বন্ধ হয়ে গেল কাজ

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: July 20, 2020 8:28 pm|    Updated: July 20, 2020 8:32 pm

Agitated migrant labourers stopped road construction allegedly using machine at Purulia

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: ১০০ দিনের কাজের (MGNREGA) প্রকল্পে রাস্তা নির্মাণে জব কার্ড থাকা পরিযায়ী শ্রমিকদের দিয়ে কাজ করানো হচ্ছে না। বদলে রাস্তার কাছে ব্যবহার হচ্ছে মেশিন। এমই অভিযোগ উঠল পুরুলিয়ার ঝালদা ১ নম্বর ব্লকের হেঁসাহাতু গ্রাম পঞ্চায়েতে। আর এই অভিযোগে ব্রজপুরে সোমবার, রাস্তা নির্মাণের প্রথম দিনই পরিযায়ী শ্রমিকদের বিক্ষোভে বন্ধ হয়ে গেল একশ দিনের কাজ। বঞ্চিত পরিযায়ীরা পরে এ নিয়ে বিডিও’র কাছে লিখিত অভিযোগ করেন।

জঙ্গলমহলের এই জেলা পরিযায়ী শ্রমিকদের (Migrant Labourers) কাজের সুযোগ করে দিয়ে তাঁদের আয়ের পথ সুনিশ্চিত করতে সর্বপ্রথম কার্যকরী পদক্ষেপ নিয়েছে। ১০০ দিনের কাজে সম্পূর্ণরূপে পরিযায়ী শ্রমিকদের কাজে লাগানো, অন্যান্য কাজের হদিশ দিতে নতুন একটি ওয়েবসাইট চালু করা হয়েছে জেলা প্রশাসনের তরফে। ঠিক সেই সময়ে একেবারে উলটো ছবি এই জেলার বনমহল – ঝালদা ১ নম্বর ব্লকে। সেই কারণে ব্রজপুর গ্রামের কাজ না পাওয়া পরিযায়ী শ্রমিকরা ১০০ দিনের
কাজই বন্ধ করে দেন।

[আরও পড়ুন: উচ্চমাধ্যমিকের মার্কশিটে দেদার নম্বর, পছন্দসই কলেজে ভরতির সুযোগ পাবে পড়ুয়ারা?]

ঝালদা ১ নং ব্লকের একাধিক জায়গায় একশ দিনের প্রকল্পে ঢালাই রাস্তার কাজ হাতে নিয়েছে প্রশাসন। সেই কাজের মধ্যেই রয়েছে সুবর্ণরেখা নদী থেকে গোলা রোড নির্মাণ। যার ব্যয় ২৩ লক্ষ ৬৫ হাজার টাকা। তবে এদিন ঝালদা এক নম্বর ব্লকের বিডিও রাজকুমার বিশ্বাস বলেন, “যাঁরা ওই রাস্তা নির্মাণের কাজ নিতে গিয়েছিলেন, তাঁরা বিধি অনুযায়ী আবেদন করেননি। বিষয়টি আমি জানার পরেই সেখানকার নির্মাণ সহায়ককে বলেছি, যাঁরা কাজ চাইছেন তাঁদেরকে
বিধিমতো পদক্ষেপ করে কাজের ব্যবস্থা করুন। তবে মেশিন ব্যবহার করার অভিযোগ ঠিক নয়। কারণ, কোনও হাপা কাটতে গেলে তবেই মেশিন প্রয়োজন হয়। তবুও আমি বিষয়টি দেখছি।”

[আরও পড়ুন: খাবারে বিষক্রিয়া নাকি অন্য কিছু? বীরভূমে শিশুমৃত্যুর ঘটনায় এখনও অধরা কারণ]

বিডিও এই যুক্তি দেখালেও তাঁর কাছেই এই বিষয়ে যে অভিযোগপত্র জমা দিয়েছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা, তাতে স্পষ্টভাবে ওই রাস্তার কাজে মেশিন ব্যবহার করার কথা উল্লেখ রয়েছে। পরিযায়ী বিক্ষোভে রাস্তা তৈরির কাজ বন্ধ হয়ে গেলেও, তা কবে শুরু হবে সেই বিষয়ে কিছুই জানাতে পারেনি ঝালদা ১ নম্বর ব্লক প্রশাসন। পরিযায়ী শ্রমিক রাহুল গড়াই বলেন, “একশ দিনের প্রকল্পে এই রাস্তা নির্মাণের কাজে যদি মেশিন ব্যবহার হয় তাহলে আমরা কোথায় যাব? এই পরিস্হিতিতে আমরা কোথায় কাজ পাব? তাছাড়া এই প্রকল্পে তো মেশিন ব্যবহার বিধি বহির্ভূত। তাই আমরা সকলে মিলে বিডিওকে বলে দিয়ে এসেছি, ওখানে আমরা কাজ না পেলে আন্দোলন হবে।”

ছবি: সুনীতা সিং।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে