২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

জঙ্গলে অজানা জন্তুর পায়ের ছাপ, বাঘের আতঙ্কে কাঁটা শালবনী

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: June 15, 2020 5:25 pm|    Updated: June 15, 2020 5:34 pm

An Images

সম্যক খান, মেদিনীপুর: আড়াই বছর পর ফের বাঘের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ল পশ্চিম মেদিনীপুরের শালবনীতে (Salboni)। জঙ্গলে নজরে পড়া অজানা জন্তুর পায়ের ছাপ ঘুম উড়িয়েছে স্থানীয়দের। তবে ওই পায়ের ছাপ আদৌ বাঘের কি না, তা এখনও নিশ্চিত করেনি বনদপ্তর। তবে ভয়ে কাঁটা স্থানীয়রা।

জানা গিয়েছে, রবিবার বিকেলে পায়রাচালি গ্রামের বাসিন্দা খগেন মাহাতো নামে এক ব্যক্তি জঙ্গলের ভিতর থেকে সাইকেলে বাড়ি ফিরছিলেন। সেই সময় বাঘের মতো দেখতে একটি প্রাণী তাঁর নজরে পড়ে। কোনওক্রমে গ্রামে ফিরেই প্রতিবেশীদের পুরো ঘটনাটি জানান তিনি। বিষয়টি জানার পরই জঙ্গলে যান স্থানীয়রা। সেখানে কোনও জন্তুর হদিশ না পেলেও বেশ কিছু পায়ের ছাপ দেখতে পান তাঁরা। এতেই বাড়ে আতঙ্ক। খবর দেওয়া হয় বনদপ্তরে। সোমবার সকালে বনদপ্তরের আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই পায়ের ছাপের ছবি তোলেন। সংগ্রহ করে নমুনাও।

tigger-2

[আরও পড়ুন: করোনার সঙ্গেই পরিষেবা দিতে হবে অন্য রোগীদেরও, স্থানীয়দের বিক্ষোভে উত্তাল সাগর দত্ত হাসপাতাল]

এক বনকর্তার কথায়, পায়ের ছাপে জন্তুটির বড় বড় নখ আছে বলে বোঝা যাচ্ছে। ফলে এটি হায়না বা প্যাঙ্গোলিন জাতীয় কোনও জন্তুরও হতে পারে। তবে সবদিকই খতিয়ে দেখা হবে। প্রসঙ্গত, প্রায় আড়াই বছর আগে এই শালবনী, চাঁদড়া, লালগড় এলাকাজুড়ে রয়েল বেঙ্গল টাইগারের উপস্থিতি টের পাওয়া গিয়েছিল। ২০১৮ সালের ১৩ এপ্রিল মেদিনীপুর ডিভিশনের চাঁদড়া রেঞ্জের অন্তর্গত বাগঘরার জঙ্গলে মর্মান্তিকভাবে খুন করা হয়েছিল ওই বাঘটিকে। তার আগে তিন চার মাস ধরে সে দাপিয়ে বেড়িয়েছিল গোটা এলাকা। সেই আতঙ্ক এখনও কাটেনি গ্রামবাসীদের মধ্যে। ফলে যে কোনও অজানা জন্তুই ঘুম কেড়ে নেয় ওই এলাকার বাসিন্দাদের।

[আরও পড়ুন: করোনার সঙ্গেই পরিষেবা দিতে হবে অন্য রোগীদেরও, স্থানীয়দের বিক্ষোভে উত্তাল সাগর দত্ত হাসপাতাল]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement