BREAKING NEWS

১৯ আষাঢ়  ১৪২৭  শনিবার ৪ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

বনগাঁগামী চলন্ত ট্রেনে পাথর ছুঁড়ল দুষ্কৃতীরা, মুখ ফাটল যাত্রীর

Published by: Bishakha Pal |    Posted: October 23, 2019 12:24 pm|    Updated: October 23, 2019 12:54 pm

An Images

সুব্রত বিশ্বাস: চলন্ত ট্রেনে পাথর ছোঁড়ার ঘটনায় এবার চরম উদ্বেগ ও আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে বনগাঁগামী যাত্রীদের মধ্যে। মঙ্গলবার রাতে বাইরে থেকে ছোঁড়া পাথরে মুখ ফেটে যায় এক যাত্রীর। তাঁর চারটি দাঁত পড়ে যায়। ন’টা সেলাই পড়ে ঠোঁটে। এই ঘটনার পর ট্রেনযাত্রীদের মধ্যে নতুন করে আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

রেলপুলিশের ডিএসপি (গেদে) নরেন্দ্রনাথ দত্ত বলেন, মধ্যমগ্রামে টেলারিংয়ের কাজ সেরে বাড়ি ফিরছিলেন মিহির ঘোষ। বনগাঁ লোকাল মধ্যমগ্রাম ছেড়ে হৃদয়পুরের কাছে যেতেই একটা পাথর এসে সরাসরি মিহিরবাবুর মুখে লাগে। তিনি ট্রেনের মধ্যেই রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে যান। আতঙ্কিত হয়ে পড়েন যাত্রীরা। তড়িঘড়ি তাঁরা আহত মিহির ঘোষকে হাবড়া হাসপাতালে নিয়ে যান। তাঁর মুখে ন’টি সেলাই পড়ে। চিকিৎসকরা জানান, চারটি দাঁতও ভেঙে গিয়েছে মিহিরবাবুর।

[ আরও পড়ুন: ভোররাতে ভয়াবহ আগুন বনগাঁয়, গোটা পাড়াকে বাঁচালেন ‘চিনু পাগলি’ ]

গত ১৩ অক্টোবরও এমন ঘটনা ঘটেছিল বনগাঁ লাইনের ট্রেনে। সেবারও দুষ্কৃতীদের ছোঁড়া পাথরে আহত হয় এক সাত বছরের বালিকা। তার আগেও ট্রেনে বেশ পাথর ছোঁড়ার ঘটনা ঘটে। পরপর এমন ঘটনা প্রশাসনকে ভাবিয়ে তুলেছে। রবিবারই জিআরপি বনগাঁ থেকে এলাকার বস্তিগুলিতে হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়। বলা হয়, এবার থেকে মদ্যপরা ট্রেনে পাথর ছুঁড়লে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পাথর ছোঁড়া আটকাতে রেল লাইনে বসে মদ খাওয়া ও আড্ডা মারার উপর জারি করা হয়েছে নিষেধাজ্ঞা। এই সমস্ত কাজগুলিকে চূড়ান্ত অপরাধ হিসেবে উল্লেখ করে শাস্তিমূলক ব্যবস্থার কথা বলা হয়। কিন্তু তা সত্ত্বেও পাথর ছোঁড়ার ঘটনা নিয়ে উদ্বিগ্ন পুলিশ। এদিকে যাত্রীদের অভিযোগ, লাইনে পাশে লাইন দিয়ে মদের ঠেক ও অপরাধীদের আড্ডাখানার জন্যই এই ধরনের অপরাধ বাড়ছে।

[ আরও পড়ুন: ‘মমতার সরকারের এক্সপায়ারি ডেট চলে এসেছে’, সংকল্প যাত্রা থেকে তোপ বাবুলের ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement