BREAKING NEWS

১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বিমাতৃসুলভ আচরণ, অভিযোগে শিলিগুড়়ি পুরসভার প্রশাসক পদে ‘না’ অশোক ভট্টাচার্যের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: May 15, 2020 10:47 pm|    Updated: May 15, 2020 11:41 pm

Ashok Bhattachrya refuses to take chief administrator of Siliguri Municipal Corporation

কৃষ্ণকুমার দাস: জল্পনাই সত্যি হল। করোনা আবহে নির্দিষ্ট সময়ে পুরভোট না হওয়ায় রাজ্য সরকারের ঘোষিত শিলিগুড়ি কর্পোরেশনের মুখ্য প্রশাসকের পদ প্রত্যাখ্যান করলেন বিদায়ী মেয়র অশোক ভট্টাচার্য। জানিয়ে দিলেন, “সরকার বলেছিল, যেখানে যাঁরা দায়িত্বে সেখানে তাঁদেরই প্রশাসক বোর্ডের সদস্য করা হবে। কিন্তু শিলিগুড়ির ক্ষেত্রে সাত বাম পুরপ্রতিনিধির সঙ্গে পাঁচ তৃণমূলের কাউন্সিলরকেও বোর্ডের সদস্য করা হয়েছে। অন্য কোনও পুরসভায় প্রশাসক নিয়োগে বিরোধী কাউন্সিলরদের এমনভাবে নেওয়া হয়নি। রাজ্য সরকার শিলিগুড়ির সঙ্গে বিমাতৃসুলভ আচরণ করেছে, তাই পদ নিচ্ছি না।”

শিলিগুড়ি পুরসভার বিজ্ঞপ্তির বিষয়টি নিয়ে তিনি মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিচ্ছেন বলেও শুক্রবার জানিয়েছেন প্রাক্তন পুরমন্ত্রী অশোকবাবু।  আগামী ১৭ তারিখ রবিবার পর্যন্তগিন রয়েছে শিলিগুড়ির বাম পুরবোর্ডের মেয়াদ। সেইদিন পর্যন্ত বর্তমান মেয়র পুরসভার কাজ চালাবেন। সূত্রের খবর, ১৮ তারিখ যদি অশোকবাবু দায়িত্ব না নেন, তা হলে উত্তরবঙ্গের কোনও একজন মন্ত্রীকেই দায়িত্ব দিতে পারে রাজ্য সরকার। ঘোরাফেরা করছে পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেবের নাম।

[আরও পড়ুন: ঘরে ফেরার উপায় সবুজ সাথী, চড়া দামে পড়ুয়াদের সাইকেল কিনছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা]

অশোক ভট্টাচার্যর প্রত্যাখ্যান নিয়ে তৃণমূলের দাবি, রাজনীতির কারণেই আগে থেকে উনি পদ নেবেন না বলে সিপিএমের তরফে থেকে জানানো হয়েছিল। এখন বিরোধী সদস্য বিষয়টি ইস্যু করছেন। করোনা পরিস্থিতিতে সবাই মিলে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সাতজন বাম সদস্যের সঙ্গে মাত্র পাঁচ বিরোধী সদস্য নিয়ে প্রশাসকমণ্ডলী তৈরি হয়েছে। শিলিগুড়িতে শাসক কাউন্সিলর ২১ এবং তৃণমূলের সদস্য ১৯ জন বলেই এমন বোর্ড গড়ে মানুষকে পরিষেবা দেওয়ার নির্দেশ রয়েছে।

[আরও পড়ুন:বিপদের বাড়বাড়ন্ত, ক্যানসারের চিকিৎসায় মুম্বই গিয়ে করোনা আক্রান্ত মা-ছেলে]

শিলিগুড়ির পাশাপাশি এদিন দক্ষিণ ২৪ পরগনার জয়নগর-মজিলপুর পুরসভাতেও  কংগ্রেসের চেয়ারম্যান সুজিত সরখেলকে প্রশাসক নিয়োগ করা হয়েছে।  তিনি অবশ্য জানিয়েছেন, ‘সবার সঙ্গে আলোচনা করেই তবে দায়িত্ব গ্রহন নিয়ে সিদ্ধান্ত জানাব।’ এদিন রাজ্য পুরদপ্তর থেকে আরও পাঁচ পুরসভায় প্রশাসক বসানোর বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছে – তুফানগঞ্জ, রামপুরহাট, গয়েশপুর, জলপাইগুড়ি ও উলুবেড়িয়া। সর্বত্রই বর্তমান পুরপ্রধানকে ‘চেয়ারপার্সন’ এবং উপ-পুরপ্রধানকে প্রশাসক বোর্ডের সদস্য নিয়োগ করা হয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে