BREAKING NEWS

১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৮  রবিবার ১৬ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

করোনার থাবা উত্তর-পূর্বের সবচেয়ে বড় সেনা ছাউনিতে, বিন্নাগুড়িতে আক্রান্ত ২০ জওয়ান

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: July 11, 2020 5:46 pm|    Updated: July 11, 2020 5:47 pm

Atleast 20 jawans test COVID positive at Binnaguri Army base, Jalpaiguri

শান্তনু কর, জলপাইগুড়ি: করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) থাবা উত্তর-পূর্বের সবচেয়ে বড় সেনা ছাউনিতে। জলপাইগুড়ির বিন্নাগুড়ি সেনা ছাউনিতে COVID পজিটিভ ২০ জন জওয়ান। সূত্রের খবর, তাঁরা সকলেই ভিনরাজ্যের। এঁদের বিন্নাগুড়ি সেনা হাসপাতালে ভরতি করানো হয়েছে। আইসোলেশনে রেখে করোনার শুরু হয়েছে চিকিৎসা। ছাউনির অন্যান্য সেনাদেরও সোয়াব টেস্টের জন্য পাঠানো হয়েছে।

জুনের মধ্যভাগে গালওয়ানে ভারত-চিন সেনার মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনার পর থেকে চিন সীমান্তে বাড়তি সেনা মোতায়েন করার কাজ শুরু হয়েছে দেশের আভ্যন্তরীণ সুরক্ষার স্বার্থে। তার জন্য বিভিন্ন রাজ্য থেকে সেনাদের যাতায়াত শুরু হয়েছে উত্তর-পূর্বের সবচেয়ে বড় সেনা ছাউনি বিন্নাগুড়িতে। এরপর চলতি সপ্তাহেই তাঁদের মধ্যে ২০ জনের শরীরে করোনার জীবাণু মিলেছে। প্রাথমিক ধারণা, ভিনরাজ্যের সেনাদের থেকেই সংক্রমণ ছড়িয়েছে।

[আরও পড়ুন: অর্জুন সিংয়ের কনভয় আটকে তল্লাশি, গাড়ির ভিতর থেকে বিজেপি কর্মীকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ]

স্থানীয় সূত্রে খবর, বিন্নাগুড়ি সেনা ছাউনিতে জুন মাস পর্যন্ত করোনা সংক্রমণের কোনও খবর ছিল না। এখানকার গুরুত্ব বুঝেই সম্পূর্ণ সুরক্ষাবলয়ে ছিল এই ছাউনি। কিন্তু জুলাইয়ের গোড়া থেকে বাইরের জওয়ানরা যাতায়াত শুরু করার পরই একসঙ্গে এতজন COVID পজিটিভ হয়ে পড়লেন। যদিও কোনও সেনা আধিকারিক এখনও করোনায় আক্রান্ত হননি বলে খবর। সুরক্ষার স্বার্থে সেনা ছাউনির সকলের সোয়াব পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। আক্রান্ত সেনা জওয়ানদের কোনও COVID হাসপাতালে ভরতি করানো হয়নি। বিন্নাগুড়ি সেনা হাসপাতালেই বিশেষ ব্যবস্থা করে চিকিৎসা চলছে। সূত্রের খবর, সুস্থ হওয়ার পর তাঁরা ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন। তারপরই ফের কাজে যোগ দিতে পারবেন। এই ঘটনায় সেনা ছাউনিতে আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

[আরও পড়ুন: প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস, বিয়ে করতে যাওয়ার নামে তরুণীকে মাঝরাস্তায় ছেড়ে পালাল প্রেমিক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement