২৪ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  রবিবার ৭ জুন ২০২০ 

Advertisement

অবৈধভাবে ভারতে আসা নাবালকদের ফেরাতে উদ্যোগ, বালুরঘাটে বাংলাদেশের মন্ত্রী

Published by: Bishakha Pal |    Posted: October 19, 2019 9:36 am|    Updated: October 19, 2019 10:59 am

An Images

রাজা দাস, বালুরঘাট: সরকারি হোমে থাকা বাংলাদেশি নাবালকদের সঙ্গে সাক্ষাৎ এবং তাদের তথ্য সম্পর্কিত বিষয় নিয়ে বালুরঘাটে এলেন বাংলাদেশের মন্ত্রী-সহ সেখানকার প্রতিনিধিরা। অবৈধভাবে ভারতে ঢুকে আটকে পড়া এই নাবালকদের  দ্রুত দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়াটাই উদ্দেশ্য। 

জানা গিয়েছে, শুক্রবার বাংলাদেশে মন্ত্রী(রাজনৈতিক)বি.এম জামাল হোসেন এবং তাঁর স্ত্রী-সহ কর্মুলার অ্যাসিস্ট্যান্ট চৌধুরী আতাস সালাম বালুরঘাটে সরকারি শুভায়ণ হোমে আসেন। সেখানে থাকা বাংলাদেশি নাবালকদের প্রত্যর্পণ নিয়ে বৈঠক করেন। এদিনের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ দিনাজপুরের জেলাশাসক নিখিল নির্মল, অতিরিক্ত জেলাশাসক (ভূমি) প্রণব কুমার ঘাষে, হোম সুপার দাওয়া দর্জি শেরপা, চাইল্ড ওয়েলফেয়ার কমিটির  চেয়ারম্যান দেবাশিস মজুমদার-সহ অন্যান্য আধিকারিকরা। বাংলাদেশের এই প্রতিনিধিরা এই সরকারি হোমে থাকা  বাংলাদেশি ১৯ নাবালকের সঙ্গে দেখা করে কথা বলেন। সেখানেই জানতে পারেন যে, কিছু নাবালকের থাকার মেয়াদ ফুরিয়ে গেলেও ভুল ঠিকানা সংক্রান্ত সমস্যায় তাদের ফেরত পাঠানো যায়নি। নাবালকদের প্রত্যর্পণ বিষয়টি যাতে দ্রুত করা যায় সে কারণেই এই পরিদর্শন বলে জানিয়েছেন আধিকারিকরা।

[ আরও পড়ুন: দুষ্কৃতীদের লালসার শিকার! রায়গঞ্জে আবর্জনার স্তূপ থেকে উদ্ধার অজ্ঞাতপরিচয় অন্তঃসত্বা ]

বাংলাদেশে মন্ত্রী(রাজনৈতিক) বি.এম জামাল হোসেন বলেন, “বাংলাদেশি কিছু নাবালক বালুরঘাট শুভায়ণ হোমে রয়েছে। তাদের সঙ্গে কথা বলতেই আমরা এসেছি। তাদের কিভাবে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া যায় সে বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে। কয়েকজন বাংলাদেশি নাবালককে নিয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়া হয়ে গেছে। আগামী ২৪ তারিখে তাদের বাংলাদেশে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বাকিদের ভুল ঠিকানা এবং ঠিকমত পরিচয় না পাওয়ায় শনাক্তকরণে অসুবিধা রয়েছে। পরিচয় যাচাই করে তাদের কেউ যত দ্রুত সম্ভব দেশে ফিরে নিয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়া চালু করা হবে।”

প্রসঙ্গত, দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার তিনদিকে রয়েছে  ভারত বাংলাদেশ সীমান্ত। ২৫২ কিলোমিটার এই সীমানায় কাঁটাতারবিহীন অন্তত ৩৫ কিলোমিটার। বিভিন্ন সময় কাজের সন্ধানে অথবা ভুলবশত বাংলাদেশী নাবালকেরা অবৈধভাবে ভারতের ভূখণ্ডে প্রবেশ করে। এরপর জেলার হিলি, বালুরঘাট, কুমারগঞ্জ-সহ বিভিন্ন এলাকা থেকে আটক হয় পুলিশ কিংবা বিএসএফএর হাতে। নাবালক হওয়ার দরুণ  তাদের জুভেনাল কোর্ট ও চাইল্ড ওয়েলফেয়ার কমিটিতে তোলা হয়। এরপর তাদের ঠিকানা হয় বালুরঘাটের শুভায়ণ হোমে।

[ আরও পড়ুন: শরীর দেখার নেশা! ভিড়ের মাঝে মহিলাদের পোশাকে ব্লেড চালাত যুবক ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement