BREAKING NEWS

২৮ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

গণনার কাজের জন্য নেই কর্মী, ব্যাংক বন্ধের জেরে সমস্যায় গ্রাহকরা

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: May 21, 2019 9:24 pm|    Updated: May 21, 2019 9:24 pm

An Images

অরূপ বসাক, মালবাজার: আগামী ২৩ মে সপ্তদশ লোকসভা ভোটের গণনার দিন। এই কাজের জন্য বিভিন্ন রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক থেকে কর্মীদের নেওয়া হয়েছে। তাই ওই কর্মীরা সব গিয়েছেন গণনার কাজে প্রশিক্ষণ নিতে। স্বাভাবিকভাবে ব্যাংকের কাজকর্ম করার জন্য নেই কোনও কর্মী। তাই ব্যাংক বন্ধ রাখতে হয়েছে। ইতিমধ্যে ব্যাংকের সামনে এই সংক্রান্ত নোটিসও ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে কর্তৃপক্ষের তরফে।

এর ফলে সকাল থেকেই টাকা তুলতে বা জমা দিতে এসে ঘুরে যাচ্ছেন গ্রাহকরা। মঙ্গলবারও এমন দৃশ্য চোখে পড়ল মালবাজার শহরের ৩১ নম্বর জাতীয় সড়কের পাশে থাকা ইউনাইটেড ব্যাংকে। মালবাজার শহর ও তার আশপাশের এলাকার মানুষদের গত কয়েক দশক ধরে পরিষেবা দিয়ে আসছে এই ব্যাংক। ফলে এই শাখার গ্রাহক সংখ্যাও প্রচুর। আগে থেকে ব্যাংক বন্ধ থাকার খবর না পেয়ে তাই মঙ্গলবার বহু গ্রাহক ব্যাংকের সামনে এসে ভিড় করেন। তাঁদের মধ্যে চা বাগানের অনেক শ্রমিকও ছিলেন। চা বাগানের কাজ বন্ধ রেখে ব্যাংকে এসে কোনও কাজ না হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই হতাশ তাঁরা।

[আরও পড়ুন-মেধাতালিকায় প্রথম ১০ জনের মধ্যে নাম নেই পুরুলিয়ার পড়ুয়াদের]

ব্যাংকের কাজকর্ম স্বাভাবিক কবে হবে? এই প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য অবশ্য স্থানীয় কোনও ব্যাংক কর্মীকে পাওয়া যায়নি। তাই ফোনে যোগাযোগ করা হয় ওই ব্যাংকের রিজিওনাল অফিসে। এপ্রসঙ্গে প্রশ্ন করলে সেখানকার এক আধিকারিক জানান, গণনার কাজ শেষ হলেই ফের ব্যাংকের কাজকর্ম স্বাভাবিক হবে।

[আরও পড়ুন- ১২ বছর বয়সেই মাধ্যমিকে উত্তীর্ণ, নজির গড়ল আমতার সইফা খাতুন]

জানা গিয়েছে, শুধু এই ব্যাংক নয় গণনার কাজের জন্য অন্য রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক থেকেও অনেক কর্মী নেওয়া হয়েছে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই কাজের সমস্যা হচ্ছে। এক গ্রাহক জানান, মঙ্গলবার ও বুধবার ভোট গণনার প্রশিক্ষণ রয়েছে। আর বৃহস্পতিবার হবে গণনা। সেই গণনা চলবে রাত পর্যন্ত। ফলে শুক্রবারও ব্যাংকের কর্মীরা কাজে আসবেন কিনা তার কোনও ঠিক নেই। ফলে ধরেই নেওয়া যায় এসপ্তাহে ব্যাংকের কোনও কাজকর্ম হবে না। তাই ভুগতে হবে গ্রাহকদের।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement