২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৩ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

করোনা কালে বেলুড় মঠে দুর্গাদর্শনের রীতি বদল, নিজস্ব ওয়েবসাইটে পুজোর সম্প্রচার

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: October 2, 2020 6:30 pm|    Updated: October 2, 2020 7:09 pm

An Images

সুব্রত বিশ্বাস: মায়ের মৃন্ময়ী রূপ এবার সরাসরি দেখতে পারবেন না ভক্তরা। দেখা যাবে প্রযুক্তির চোখ দিয়ে। বেলুড় মঠের নিজস্ব ওয়েবসাইটে এবারের দুর্গাপুজোর (Durga Puja) খুঁটিনাটি সবই দেখতে পারবেন আমজনতা। করোনা কালে এভাবেই বদলে যাচ্ছে বেলুড় মঠের ঐতিহ্যবাহী দুর্গাপুজো। পালটাচ্ছে আরও এক গুরুত্বপূর্ণ রীতিও। এবছর পুজোর ভোগ থেকেও বঞ্চিত হতে হবে প্রায় দু’লক্ষ ভক্তকে।

করোনা (Coronavirus) মহামারীতে ত্রস্ত বেলুড় মঠ (Belur Math)। মন্দিরে তালা পড়েছে আগেই। সেই তালা খুলবে না পুজোতেও। তবে মঠ সূত্রে জানানো হয়েছে, এবারও বৈদিক নিয়ম মেনে দেবী দুর্গার পুজো হবে। সেখানে কোনওরকম খামতি থাকবে না। চিরাচরিত প্রথা মেনে হবে কুমারী পুজো, সন্ধি পুজোও। তবে তা একেবারে নিভৃতে। মূল মন্দিরে মায়ের পুজোর আয়োজন হচ্ছে। গর্ভগৃহে শ্রীশ্রী ঠাকুর রামকৃষ্ণ, তাঁর সামনে ভক্তরা যেখানে বসে আরতি দেখেন, সেই নাটমন্দিরে দুর্গাপুজো হবে। করোনার প্রকোপে এবার মায়ের পুজো বাইরে হবে না। অর্থ সাশ্রয়ের জন্য ও সংক্রমণের আশঙ্কায় এবার বন্ধ রাখা হয়েছে বাইরে মণ্ডপ তৈরির কাজ।

[আরও পড়ুন: মোবাইল টাওয়ার বসানোর নামে ভুয়ো অফিস খুলে কোটি টাকা প্রতারণা, লেকটাউনে ধৃত ২]

২০০০ সাল থেকে মায়ের পুজো বাইরের আঙিনায় আনা হয়েছে। মঠ সূত্রে বলা হয়েছে, শুরু থেকে মায়ের পুজোর আয়োজন হত নাটমন্দিরের ভিতরেই। পরে বাস্তুকারদের পরামর্শে পুজোর আয়োজন বাইরে নিয়ে আসা হয়। তাঁদের মত ছিল, ভক্তদের ভিড়ের চাপে মন্দিরের ক্ষতি হতে পারে। সেই আশঙ্কায় কুড়ি বছর ধরে পুজোর আয়োজন বাইরে হয়ে আসছে। কুড়ি বছর আগের রীতিতে এ বছরও পুজোর আয়োজন হচ্ছে, পুজোর নিয়মে কোনও বদল হচ্ছে না। তবে মায়ের সামনের এসে পুজো না দেখতে পারার আক্ষেপ যাতে ভক্তদের মনে বাসা না বাঁধে, সেজন্য পুজোর সবকটা দিন মায়ের পুজোর যাবতীয় কিছু সরাসরি দেখা যাবে বেলুড়মঠের নিজস্ব ওয়েবসাইটে। www.belurmath.org সাইটে দেখা যাবে লাইভ (Live) টেলিকাস্ট। এছাড়া দূরদর্শন প্রতিবারের মতো টেলিকাস্ট করবে নিয়ম মেনে। অন্যান্য বৈধ চ্যানেলগুলি পুজো তুলে ধরতে চাইলে অনুমতি দেবেন মঠ কর্মকর্তারা।

[আরও পড়ুন: ‘বাংলায় গণতান্ত্রিক পরিবেশ গড়ে উঠুক’, গান্ধীজয়ন্তীর টুইটেও মমতাকে খোঁচা ধনকড়ের]

বেলুড় মঠ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওয়েবসাইটে সরাসরি দেখা যাবে পঞ্চমীর দিন সন্ধ্যারতি, দেবীর বোধন, ষষ্ঠীর দিন একই সময়ে দেবীর কল্পারম্ভ আমন্ত্রণ অধিবাস। সপ্তমী, অষ্টমী, নবমীর পূজা। অষ্টমীর দিন কুমারী পূজা, দশমীর দিন দেবী বিসর্জন। সব দৃশ্য চাক্ষুষ না হলেও যাতে ওয়েবসাইটে যথা সময়ে দেখা যায় তার সব ব্যবস্থায় রেখেছে বেলুড় মঠ কর্তৃপক্ষ।

বাহ্যিক আড়ম্বর এবার বা থাকলেও চিরাচরিত প্রথা মেনে মায়ের পুজোর দানধ্যান নিচ্ছে মঠ। প্রতি রবিবার মঠের ভিতরে অস্থায়ী অফিস করে ভক্তদের দান গ্রহণ হচ্ছে। প্রতি রবিবার সকাল ৯টা থেকে ১১টা, বিকেলে সাড়ে তিনটে থেকে সাড়ে পাঁচটার মধ্যে মায়ের পুজোর উদ্দেশ্যে বিভিন্ন সামগ্রী দিতে পারছেন ভক্তরা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement