১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৬ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কুড়মিদের দাবি মেনে পদক্ষেপ রাজ্য সরকারের, তবে আন্দোলন প্রত্যাহার অনিশ্চিতই

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 23, 2022 5:15 pm|    Updated: September 23, 2022 10:16 pm

Bengal govt trying to pacify protesting Kurmi community with no results yet | Sangbad Pratidin

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: আদিবাসী সম্প্রদায়ভুক্ত করার দাবি টানা চারদিন ধরে কুড়মি (Kurmi) সমাজের আন্দোলনে তোলপাড় জঙ্গলমহলের একটা বড় অংশ। পুরুলিয়া (Purulia), ঝাড়গ্রাম, মেদিনীপুরে রেল ও সড়ক পরিষেবা কার্যত স্তব্ধ। টানা চারদিন আন্দোলনের পর তাঁদের দাবি মেনে কেন্দ্রকে পাঠানো CRI রিপোর্টের প্রতিলিপি আন্দোলনকারীদের হাতে তুলে দিল রাজ্য প্রশাসন। তবে তারপরও আন্দোলন প্রত্যাহার করা নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েই গেল। আন্দোলনের প্রধান নেতা অজিত প্রসাদ মাহাতো জানালেন, ওই চিঠি কুড়মি সমাজের বিশিষ্টদের দিয়ে পড়ানো হবে। তাতে যদি বোঝা যায় যে সরকার তাঁদের হয়ে সমস্ত দাবি তুলে ধরেছে, তাহলেই সরকারকে ধন্যবাদ দেওয়া এবং আন্দোলন প্রত্যাহারের কথা ভাবা হবে, নচেৎ নয়।

আন্দোলনের প্রথম ধাপ হিসেবে দাবি আদায়ের পথে খানিকটা এগোল আদিবাসী কুড়মি সমাজ। দাবি মেনে বহু প্রতীক্ষিত সিআরআই রিপোর্টের প্রতিলিপি হাতে পেলেন কুড়মি জনজাতির আন্দোলনকারীরা। তাতে দেখা গিয়েছে, কেন্দ্রের কাছে সংশোধিত সিআরআই (CRI) রিপোর্টটি রাজ্য সরকার বৃহস্পতিবার পাঠিয়েছিল। তারপর শুক্রবার বিকালে সাধারণ ও পুলিশ প্রশাসনের মাধ্যমে সেই রিপোর্টের প্রতিলিপি অবরোধকারীদের হাতে আসে। এদিন জেলা ও পুলিশ প্রশাসনের প্রতিনিধিদের মাধ্যমে প্রতিলিপিটি পৌঁছে দেওয়া হয় তাঁদের হাতে। রাজ্যের তরফে ছিলেন পুরুলিয়ার অতিরিক্ত জেলাশাসক (সাধারণ) মুফতি শামিম সওকত, পুরুলিয়া দু’নম্বর ব্লকের বিডিও দেবজিৎ রায়, পুরুলিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) পিনাকী দত্ত।

[আরও পড়ুন: SSC মামলা: ববিতা সরকারের পর হাই কোর্টের নির্দেশে এবার চাকরি পেতে চলেছেন প্রিয়াঙ্কা সাউ]

তবে তাতেও এই মুহূর্তে রেল অবরোধ (Rail Block) বা সড়ক অবরোধ প্রত্যাহার করে নেওয়া হচ্ছে, তা নয়। কুড়মি সমাজের তরফে জানানো হয়েছে, তাঁদের পরামর্শদাতা কমিটি ও বুদ্ধিজীবী মানুষজন সেই রিপোর্টের প্রতিলিপি খতিয়ে দেখে যদি তাদের পক্ষে যায় তবেই তারা রাজ্য সরকারকে ধন্যবাদ জানাবেন, অবরোধ তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেবেন। পরবর্তী সিদ্ধান্ত নিয়ে কুশতাঁড় স্টেশন থেকে টেলি কনফারেন্সের মাধ্যমে ঝাড়গ্রামের খেমাশুলিতে অংশ নেওয়া নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

[আরও পড়ুন: বিরোধী ঐক্যে শান, সোনিয়ার সঙ্গে বৈঠক করতে দিল্লি যাচ্ছেন লালু-নীতীশ]

২০১৬ সাল থেকে আদিবাসী কুড়মি সমাজ কুড়মি জনজাতিকে আদিবাসী তালিকাভুক্ত করার দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। সেই আন্দোলনের পরেই ২০১৭ সালের ১৮ মে রাজ্য সরকার তাদের দাবির বিষয়ে আন্তরিক হয়ে সংশ্লিষ্ট বিভাগের সিআরআই রিপোর্ট পাঠায়। কিন্তু সেই রিপোর্টে সন্তুষ্ট হয়নি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রক। এই জনজাতিকে কেন আদিবাসী করা হবে, সেই সম্পর্কিত তথ্যবহুল রিপোর্ট দরকার। যে রিপোর্ট থেকে বোঝা যাবে এই জনজাতি আদিম ও প্রাচীন। যেখানে থাকবে তাদের সমৃদ্ধশালী সাংস্কৃতিক দিক। থাকবে সামাজিক, অর্থনৈতিক অবস্থার কথা। কিন্তু সেই সংশোধিত সিআরআই রিপোর্ট রাজ্য কিন্তু এতদিন সংশ্লিষ্ট বিভাগে পাঠায়নি বলে অভিযোগ। গত মঙ্গলবার থেকে এই অবরোধ কর্মসূচি চলার পর ২২ সেপ্টেম্বর অর্থাৎ বৃহস্পতিবার রাজ্যের অনগ্রসর শ্রেণী কল্যাণ বিভাগ সংশ্লিষ্ট বিভাগে ওই সংশোধিত রিপোর্ট পাঠায়।

দেখুন ভিডিও:

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে