১৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  রবিবার ৪ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘সবথেকে বড় দেশদ্রোহীদের গড় হল বাংলা’, ফের বেফাঁস দিলীপ

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: January 14, 2020 7:48 pm|    Updated: January 14, 2020 7:48 pm

Bengal is biggest Anti National hub! Taunts Dilip Ghosh

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিতর্ক কিছুতেই পিছু ছাড়ে না তাঁর। বা বলা যেতে পারে, তিনি বিতর্ককে সঙ্গী করেই চলেন। কথা হচ্ছে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের। একের পর এক বিতর্কিত মন্তব্যের তালিকায় এবার নয়া সংযোজন করলেন মেদিনীপুরের সাংসদ। মঙ্গলবার খড়গপুরে নিজের খাসতালুকে CAA সমর্থনে কর্মিসভায় তিনি বলেন, ‘সবথেকে বড় দেশদ্রোহীদের গড় হল বাংলা।’ অর্থাৎ দেশপ্রেম দেখাতে গিয়ে এবার গোটা বাংলা ও বাঙালি সমাজকে বিদ্রুপ করলেন দিলীপ ঘোষ।

প্রসঙ্গত, গত রবিবার রানাঘাটে অভিনন্দন যাত্রার পর সিএএ সমর্থনে জনসভায় বিতর্কিত মন্তব্য করেন দিলীপ ঘোষ। বিজেপি সাংসদ দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘এই রাজ্যে একটাও গুলি চলেনি, লাঠি চলেনি, এফআইআর হয়নি। কাউকে গ্রেপ্তার করেনি পুলিশ। কিন্তু কেন করেনি? কারও বাপের সম্পত্তি নাকি? মানুষের করের টাকায় রেল-বাস, রেললাইন, রাস্তা করা হয়। সে সব নষ্ট করে দিয়েছে। অসম, উত্তরপ্রদেশ, কর্নাটকে এই শয়তানদের আমাদের সরকার গুলি করে মেরেছে কুকুরের মতো। তুলে নিয়ে গিয়ে কেস দিয়েছে। ওরা এখানে আসবে, খাবে, আর এখানকার সম্পত্তি নষ্ট করবে? জমিদারি পেয়েছ নাকি? লাঠিও মারব, গুলিও করব, জেলেও পাঠাব। আর তাই করেছে আমাদের সরকার।’

[আরও পড়ুন: বিতর্কিত মন্তব্যের জের, দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে FIR রানাঘাটের তৃণমূল নেতার]

দিলীপের এই মন্তব্যের পর রাজ্যজুড়ে নিন্দার ঝড় ওঠে। খোদ দলীয় সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় তাঁর মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেন। বলেন, ‘দিলীপ ঘোষ যা বলেছেন, তা বিজেপির বক্তব্য নয়। এটা একেবারেই তাঁর কল্পনাপ্রসূত। আর অসম ও উত্তরপ্রদেশে কখনও কোনও কারণেই মানুষের উপর গুলি চালানো হয়নি। উনি দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো মন্তব্য করেছেন।’ যদিও বাবুলের মন্তব্যের পরেও নিজের অবস্থানে অনড় দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, ‘যে যেমন বলছে বলুক। আমাদের সরকার করেছে তাই বলেছি। উত্তরপ্রদেশে যা হয়েছে সুযোগ পেলে এখানেও তা করব।’ এদিন বাঙালিদের দেশদ্রোহী বলে ফের বিতর্কের পারদ চড়ালেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে