BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শুক্রবার ২০ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

চুঁচুড়ায় ‘ছাপ্পা’ রুখতে গিয়ে আক্রান্ত লকেট, বিজেপি প্রার্থীর গাড়ি ভাঙচুর

Published by: Suparna Majumder |    Posted: April 10, 2021 11:24 am|    Updated: April 10, 2021 1:12 pm

Bengal Polls: BJP leader Locket Chatterjee's car attacked by locals in Hoogly | Sangbad Pratidin

পার্থসারথি সিনহা: চুঁচুড়া কেন্দ্রে আক্রান্ত লকেট চট্টোপাধ্যায় (Locket Chatterjee)। ভাঙচুর করা হয়েছে বিজেপি প্রার্থীর (BJP Candidate) গাড়ি। হাতেও চোট পেয়েছেন লকেট। তৃণমূল সমর্থকদের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ করেছেন তিনি।

শনিবার সকালে মন্দিরে পুজো দিয়েই বুথ ভ্রমণে বেরিয়েছিলেন চুঁচুড়া (Chunchura of Hooghly) কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী লকেট। অভিযোগ, ৬৬ নম্বরের সংখ্যালঘু অধ্যুষিত বুথে যখন তিনি পৌঁছান সেখানে ইভিএমের কাছে একজন মহিলা দাঁড়িয়ে ছিলেন। তাঁকে দেখেই লকেটের সন্দেহ হয়। তিনি পরিচয় জানতে চান। তখন ওই মহিলা জানান তিনি কোভিড ম্যানেজমেন্ট টিমের সদস্য। কিন্তু এমন কারও ইভিএমের কাছে দাঁড়ানোর অনুমতি নেই বলেই অভিযোগ করেন বিজেপি সাংসদ। লকেটের অভিযোগ, ছাপ্পা ভোটের বিষয়টি হাতেনাতে ধরে ফেলেছিলেন বলেই তাঁর উপর হামলা করা হয়। ইট, পাটকেল ছোড়া হয়। লকেটের গাড়ির কাঁচ ভেঙে যায়। তাঁর হাতে চোট লাগে। পুলিশের বিরুদ্ধে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগও করেন লকেট। পাশাপাশি ঘটনাস্থলে আরও কেন্দ্রীয় বাহিনি চেয়ে পাঠান। তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই এই ঘটনার জন্য দায়ি বলে অভিযোগ লকেটের। ঘটনার জেরে ৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: অপরাধীকে ধরতে ইসলামপুরের গ্রামে হানা, দুষ্কৃতীদের পালটা মারে মৃত বিহারের আইসি]

লকেটের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন চুঁচুড়ার তৃণমূল প্রার্থী (TMC Candidate) অসিত মজুমদার। তিনি জানান চুঁচুড়ার এই কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণভাবেই ভোট হয়। বিজেপি প্রার্থীই উত্তেজনা সৃষ্টি করে ভোটারদের প্রভাবিত করার চেষ্টা করছেন বলে পালটা অভিযোগ করেন তিনি। পুরো ঘটনাই সাজানো নাটক বলে মন্তব্য করে তিনি পালটা অভিযোগ করেন, লকেট নিজেই ভোটারদের ভয় দেখাচ্ছিলেন।  যাঁরা স্যানিটাইজার দিচ্ছিলেন। তাঁদেরও বলছিলেন আপনি কেন এখানে। প্রাথমিক স্কুল থেকে এক মহিলা ভোটকর্মীকে বেরও করে দেন। এদিকে যে মহিলাকে নিয়ে অভিযোগ তিনি বলেন, “আমি গরিব মানুষ ৩৭০ টাকা দিয়েছে মহকুমা শাসক। তাই স্যানিটাইজার দিচ্ছিলাম। আমি ভোট প্রভাবিত করিনি।”

উল্লেখ্য, এর আগে চুঁচুড়ার সংখ্যালঘু অধ্যুষিত ঈশ্বরবাহা এলাকার বুথে লকেট চট্টোপাধ্যায়কে ঘিরে কালো পতাকা দেখানো হয়। সূত্রের খবর, সকালেই ওই বুথে গিয়েছিলেন লকেট। সেখানে ভোটারদের লাইনে গন্ডগোল হয়। লকেট যেতেই তাঁকে ঘিরে শুরু হয় বিক্ষোভ। গো ব্যাক স্লোগানও দেওয়া হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। মানসপুরের একটু বুথে গিয়ে আবার লকেট চট্টোপাধ্যায় দেখেন সিসিটিভি মাটিতে পড়ে রয়েছে। নিজের উদ্যোগে সেটি লাগানোর বন্দোবস্ত করেন তিনি। 

[আরও পড়ুন: বাংলায় হাওয়া বিজেপির পালেই! প্রশান্ত কিশোরের বিস্ফোরক অডিও ক্লিপ ঘিরে জল্পনা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে