BREAKING NEWS

৯ কার্তিক  ১৪২৮  বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

Bharat Bandh: কৃষক সংগঠনের ডাকা সাধারণ ধর্মঘটের প্রভাব রাজ্যে, বিভিন্ন প্রান্তে রেল-সড়ক অবরোধ

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 27, 2021 9:01 am|    Updated: September 27, 2021 12:20 pm

Bharat Bandh: rail and road block across West Bengal to support general strike to withdraw new farm laws | Sangbad Pratidin

ছবি: দেবাশিস বিশ্বাস

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্রের তিন নয়া কৃষি আইন (Farm Laws) প্রত্যাহারের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে সাধারণ ধর্মঘটের (Strike) ডাক দিয়েছে কৃষক সংগঠনগুলি। নেতৃত্বে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা (Sangyukt Kishan Morcha)। সকাল ৬টা থেকে বিকেল ৪টে পর্যন্ত চলবে ধর্মঘট। দেশের বিভিন্ন জায়গায় কৃষকদের প্রতিবাদ বিক্ষোভ চলছে। স্তব্ধ যানচলাচল। কৃষক সংগঠনের ডাকা এই ধর্মঘটকে সমর্থন জানিয়েছে বামেরাও। যার জেরে ধর্মঘটের ভালই প্রভাব পড়েছে এ রাজ্যেও। কলকাতায় যান চলাচল আপাতত স্বাভাবিক থাকলেও, সংলগ্ন এলাকা এবং জেলাগুলিতে ভাল প্রভাব পড়েছে। যাদবপুর, শ্যামনগরে সকাল থেকে চলছে রেল অবরোধ (Rail block)। হুগলির বিভিন্ন জায়গায় রাস্তা অবরোধে নেমেছেন সিপিএম কর্মী, সমর্থকরা। ফলে সপ্তাহের প্রথম কাজের দিন পথে নেমে সমস্যা পড়েছেন নিত্যযাত্রীরা।

ছবি: দেবাশিস বিশ্বাস

সকাল থেকে উত্তরবঙ্গের (North Bengal)জেলাগুলিতে ধর্মঘটের জেরে ব্যাহত জনজীবন। কোচবিহার (Cooch Behar) শহরে সকাল থেকেই বাম কর্মী-সমর্থকরা পতাকা হাতে রাস্তায় নেমেছেন ধর্মঘটের সমর্থন। দলীয় কার্যালয়গুলির সামনে মিছিল, সভা চলছে। কোচবিহার শহরে পথঘাট শুনশান। অন্যদিকে, জলপাইগুড়িতেও কৃষক ধর্মঘটের সমর্থনে রাস্তায় যানবাহন বিশেষ চলছে না। বামেরা মিছিলের আয়োজন করলে পুলিশ তা আটকে দেয়। জোর করে সরকারি বাস আটকানোর অভিযোগ ওঠে ধর্মঘট সমর্থনকারীদের বিরুদ্ধে। এক্ষেত্রেও পুলিশ কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে। তবে জলপাইগুড়ি শহরে বন্ধ দোকানপাট, রাস্তায় নামেনি প্রায় কোনও বেসরকারি বাসই। দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাট শহরেও চলছে না বেসরকারি বাস।

[আরও পড়ুন: উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে জ্বরের বলি আরও তিন শিশু, ক্রমশ বাড়ছে উদ্বেগ]

এদিকে, কিষাণ মোর্চার ডাকা ধর্মঘটকে সমর্থন জানিয়ে সিপিএম (CPM) কর্মী, সমর্থকরা যাদবপুর স্টেশনে রেল অবরোধ করেন সকালে। স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় মিছিলও করে সিপিএম। উত্তর ২৪ পরগনার শ্যামনগরেও ট্রেন আটকে দেওয়া হয়। পতাকা হাতে সিপিএম সমর্থকরা রেলট্র্যাকের উপর বসে অবরোধ শুরু করেন। তাঁদের সাফ কথা, কেন্দ্রের আনা নতুন তিনটি কৃষি আইন কৃষক স্বার্থ বিরোধী। তাই তা প্রত্যাহার করা না হলে প্রতিবাদ চলবেই।

[আরও পড়ুন: পরকীয়ার শাস্তি! মহিলার মুখে এলোপাথাড়ি ব্লেড চালাল প্রেমিকের স্ত্রী]

খড়গপুরেও বাম ও কংগ্রেস কর্মীরা ধর্মঘটের সমর্থনে রাস্তায় নেমেছেন। সকালে আইআইটি-র পড়ুয়া, কর্মীদের প্রবেশে বাধা দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। হাওড়ার ডোমজুড়-সহ কয়েকটি জায়গায় পথ অবরোধ চলছে। চুঁচুড়ায় রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভে শামিল ধর্মঘট সমর্থকরা।

বারাসতের চাঁপাডালি মোড়েও চলছে অবরোধ। তবে পুলিশও সতর্ক। চলছ কড়া নজরদারি। প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে চলছে পুলিশ পিকেটিং। লেকটাউনের যশোর রোডেও কাস্তে-হাতুড়ি-তারা পতাকা নিয়ে রাস্তায় মিছিল করেন সিপিএম সমর্থকরা।

এদিকে, দেশজুড়ে ধর্মঘটের প্রভাব পড়ায় কৃষক নেতা রাকেশ টিকায়েতের (Rakesh Tikait) প্রতিক্রিয়া, নতুন কৃষি আইন যে কৃষক স্বার্থবিরোধী, তা সকলেই বুঝছেন। তাই তা প্রত্যাহারের দাবি জোরদার হচ্ছে। প্রয়োজনে ১০ বছর ধরেই এই আন্দোলন চলবে বলে জানিয়েছেন তিনি। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement