১০ মাঘ  ১৪২৬  শুক্রবার ২৪ জানুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

স্টাফ রিপোর্টার: লোকসভা নির্বাচনে শাসকদলের সঙ্গে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করেছিল বিজেপি। দখলে নিয়েছিল ১৮টি আসন। কিন্তু তিনটি কেন্দ্রের উপনির্বাচনের ফলাফলে শাসকদল অনেকটাই পিছনে ফেলে দিয়েছে গেরুয়া শিবিরকে। সেই কারণেই আসন্ন পুরসভা নির্বাচন ও ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে সরকারিভাবে সাংগঠনিক রদবদল প্রক্রিয়া শুরু করল বিজেপি। প্রথম দফায় পাঁচ জেলার পুরনো মুখ সরিয়ে নতুন লোকের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে জেলা সভাপতির দায়িত্ব। একইসঙ্গে ডায়মন্ড হারবার নতুন জেলায় রূপান্তরিত হওয়ায় বিজেপির নতুন জেলা সভাপতির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬।

শুক্রবার রাজ্য বিজেপির অন্যতম সাধারণ সম্পাদক প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, রাজ্যে বিজেপির মোট ৩৩টি সাংগঠনিক জেলার মধ্যে ২৩টি জেলার সভাপতি পদের নাম চূড়ান্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে ৬টি জেলায় নতুন মুখ সভাপতি পদে আনা হয়েছে। সাংগঠনিক কাজের সুবিধার্থে দক্ষিণ ২৪ পরগনা (পশ্চিম) জেলাকে ভেঙে মথুরাপুর ও ডায়মন্ড হারবার এই দু’টি নতুন সাংগঠনিক জেলায় রূপান্তরিত করা হয়েছে। তিনি জানান, বাকি ১০টি সাংগঠনিক জেলার সভাপতিদের তালিকা আগামী দু’-এক দিনের মধ্যেই চূড়ান্ত করা হবে।

[আরও পড়ুন:গাড়ির সঙ্গে ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, মুর্শিদাবাদে মৃত্যু শিলিগুড়ির বিজেপি জেলা সভাপতির]

প্রতাপবাবুর কথা অনুযায়ী, যে ৫টি জেলার সভাপতি বদল করা হয়েছে সেগুলি হল দক্ষিণ ২৪ পরগনা (পূর্ব), বসিরহাট, দক্ষিণ দিনাজপুর, হাওড়া গ্রামীণ ও জলপাইগুড়ি। দক্ষিণ ২৪ পরগনা (পূর্ব)-র সভাপতি হয়েছেন হরিকৃষ্ণ দত্ত। বসিরহাটের নতুন সভাপতি তারক ঘোষ। হাওড়া গ্রামীণ জেলার নতুন সভাপতি শিবশঙ্কর বেজ। দক্ষিণ দিনাজপুর ও জলপাইগুড়ি জেলার সভাপতি হয়েছেন যথাক্রমে বিনয় বর্মন ও বাপি গোস্বামী। এছাড়াও নতুন জেলা ডায়মন্ড হারবারের সভাপতি করা হয়েছে উমেশ দাসকে। সূত্রের খবর, বিজেপির রাজ্য নেতৃত্বেও কিছু পরিবর্তন শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা। তবে তার আগে জেলা নেতৃত্বকে সাজাতে চাইছে গেরুয়া শিবির।

[আরও পড়ুন: সমবায় সমিতিতে আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ, বাঁকুড়ায় গ্রেপ্তার সমিতির সম্পাদক]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং