BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

গাড়ির সঙ্গে ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, মুর্শিদাবাদে মৃত্যু শিলিগুড়ির বিজেপি জেলা সভাপতির

Published by: Bishakha Pal |    Posted: December 7, 2019 10:38 am|    Updated: December 7, 2019 1:45 pm

An Images

কল্যাণ চন্দ্র, বহরমপুর: মুর্শিদাবাদে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন শিলিগুড়ির বিজেপি জেলা সভাপতি অভিজিৎ চৌধুরী। শনিবার ভোরের দিকে কলকাতা থেকে বাড়ি ফেরার পথে দুর্ঘটনাটি ঘটে। দুর্ঘটনার পর তাঁকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভরতি করা হয়। সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর।

শুক্রবার কলকাতা থেকে কাজ সেরে শিলিগুড়ি ফিরছিলেন অভিজিৎবাবু। বহরমপুরের ভাকুড়ি এলাকায় ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে দুর্ঘটনাটি ঘটে। উলটোদিক থেকে আসা একটি ট্রাকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় তাঁর গাড়ির। দুর্ঘটনার পরপরই স্থানীয়রা অভিজিৎবাবুকে উদ্ধার করেন। বিজেপি সভাপতিকে নিয়ে যাওয়া হয় মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। কিন্তু ততক্ষণে মৃত্যু হয়েছে অভিজিৎবাবুর। চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৪ জন। তাঁদেরও মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে পুলিশ। তদন্ত শুরু করেছে তারা। আহতদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

[ আরও পড়ুন: নিরাপদ নয় এরাজ্যও! ডায়মন্ড হারবারে নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ প্রৌঢ়ের বিরুদ্ধে ]

abhijit-died

পুলিশ সূত্রে খবর, কলকাতায় কাজ সেরে নিজের গাড়িতেই বাড়ি ফিরছিলেন অভিজিৎবাবু। শনিবার ভোর সাড়ে তিনটে নাগাদ বহরমপুরে দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে একজনের নাম রোহিত ঘোষ। তিনি পুলিশকে বয়ান দিতে পেরেছেন। তাঁর বক্তব্য অনুযায়ী, গাড়ির সামনে আচমকা কোনও প্রাণী চলে এসেছিল। তার ফলেই গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। উলটোদিক থেকে আসা ট্রাকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুসারে, গাড়ির চালক সুস্থ রয়েছেন। আর একজনের বুকে আঘাত লেগেছে। তাঁর চিকিৎসা চলছে।

এদিকে ঘটনার খবর পাওয়া মাত্রই হাসপাতালে যান স্থানীয় বিজেপি নেতারা। মুর্শিদাবাদ জেলার বিজেপি সভাপতি গৌরীশঙ্কর ঘোষ জানান, ঘটনার খবর পাওয়া মাত্রই তিনি হাসপাতালে যান। কিন্তু ততক্ষণে মারা গিয়েছেন অভিজিৎবাবু। খুবই দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা। শোক প্রকাশ করেছেন অন্য বিজেপি নেতারাও। ঘটনায় শোকের ছায়া অভিজিৎবাবুর শিলিগুড়ির বাড়িতে।

[ আরও পড়ুন: দেশে বসে বিদেশে টাকা পাচার, হ্যাকিংয়ের ফাঁদে উধাও তথ্যপ্রযুক্তির কর্মী ৪০ হাজার টাকা ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement