৪ আশ্বিন  ১৪২৬  রবিবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রিন্টু ব্রহ্ম, কালনা:  মোদি ঝড়ে সারা বাংলার একাধিক এলাকায় হেরেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থীরা। তবে এই মোদি ঝড়ে ফসল তুলতে পারেননি বর্ধমান পূর্ব কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী পরেশচন্দ্র দাস। কেন্দ্রীয় সরকারের প্রাক্তন অফিসার থেকে অবসর নিয়ে প্রথমবারের জন্য বিজেপির প্রার্থী হিসেবে ভোট দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। পথে নেমে লড়াইও করেছিলেন। কিন্তু,জিততে পারেননি। বর্ধমান পূর্ব লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী পরেশচন্দ্র দাসকে ১ লক্ষের কাছাকাছি ভোটে হারিয়ে দিয়েছেন তৃণমূল প্রার্থী ও বিদায়ী সাংসদ সুনীল মণ্ডল। হারের সমস্ত দায়ভার স্বীকার করে বিজেপির প্রার্থী পরেশচন্দ্র দাস সোশ্যাল মিডিয়ায় দুঃখপ্রকাশ করলেন। ক্ষমাও চাইলেন দলীয় কর্মী-সমর্থকদের কাছে।

[আরও পড়ুন: হারের পর রাজনীতি ছাড়ছেন সায়ন্তন? ফেসবুক পোস্টে বাড়ল জল্পনা]

পরেশবাবু ফেসবুকে পোস্ট করেছে, “আমি বিজেপির প্রার্থী হিসাবে বর্ধমান পূর্বের মানুষের বিজয়ী হওয়ার আশা-আকাঙ্খার ও স্বপ্নকে পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছি। তার জন্য আন্তরিকভাবে খুবই দুঃখিত। আপনারা আমাকে মাফ করবেন। অনেকের অফুরন্ত ভালবাসা ও আশীর্বাদ পেয়েছি গত দুদিনের মধ্যেই।” যদিও হাল ছাড়েননি তিনি। ভোটের পরবর্তী সময়েও পাশে থাকার বার্তাও দিয়েছেন বর্ধমান পূর্ব লোকসভা কেন্দ্রের পরাজিত বিজেপি প্রার্থী। পরেশচন্দ্র দাস আরও বলেন, “আমি আপনাদের সঙ্গেই আছি। সকলকে আমার সশ্রদ্ধ প্রণাম।” যা নিয়েই ফের আশা দেখছেন বিজেপির কর্মীরা। বর্ধমান পূর্ব কেন্দ্রের সাতটি বিধানসভার মধ্যে একমাত্র কাটোয়াতেই হেরেছে তৃণমূল। লিড পেয়েছে বিজেপি। আবার কালনা পুরসভার বেশির ভাগ ওয়ার্ডেই জিতেছে বিজেপি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং