BREAKING NEWS

১৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  শুক্রবার ২৯ মে ২০২০ 

Advertisement

কেশপুরে বাজেয়াপ্ত ভারতী ঘোষের গাড়ি, প্রতিবাদে মন্দিরে অবস্থান বিক্ষোভ বিজেপি প্রার্থীর

Published by: Tanujit Das |    Posted: May 12, 2019 12:27 pm|    Updated: May 17, 2019 1:46 pm

An Images

সম্যক খান, মেদিনীপুর: সঠিক কাগজপত্র না থাকায় কেশপুর বাজারে ঘাটালের ভারতী ঘোষের দুটি গাড়ি বাজেয়াপ্ত করল পুলিশ৷ দীর্ঘক্ষণ ধরে বিজেপি প্রার্থীর সঙ্গে বাগবিতণ্ডা হয় পুলিশের৷ এরপর তাঁর দুটি গাড়ি বাজেয়াপ্ত করে পুলিশ৷ ঘটনার প্রতিবাদ করে স্থানীয় একটি কালীমন্দিরে অবস্থান শুরু করেন ভারতী ঘোষ৷ প্রশাসনের বিরুদ্ধে নিষ্ক্রিয় থাকার অভিযোগেও সরব হয়েছেন তিনি৷ অন্যদিকে, বিজেপি প্রার্থীর বিরুদ্ধে এলাকার পরিস্থিতি উত্তপ্ত করার অভিযোগ করেছে শাসকদল৷

[ আরও পড়ুন: ভারতীকে ঘিরে বিক্ষোভ ঠেকাতে চার রাউন্ড গুলি দেহরক্ষীর, গুরুতর জখম এক ]

ঘাটালের বিজেপি প্রার্থী জানান, ‘‘প্রার্থীর দায়িত্ব ভেহিকলের জন্য আগাম অনুমতি নেওয়া৷ আমি গতকাল কেশপুরে ঢুকব এমন জানিয়ে, এডিএ-এর কাছে অনুমতি নিয়েছিলাম৷ সেটা ডিলিট করে দিয়েছে৷ এবং আজ আমার গাড়ি আটকেছে পুলিশ৷’’ অন্যদিকে, ভারতীর বিরুদ্ধেই এলাকায় সন্ত্রাস তৈরির অভিযোগ করেছে তৃণমূল নেতৃত্ব৷ রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম জানান, বিজেপি প্রার্থী গায়ের জোরে বলপূর্বক বুথে বহিরাগত ঢোকানোর চেষ্টা করে৷ সেটাই মানুষ রুখে দেয়৷ রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী জানান, ‘‘এটা মানুষের ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ৷ উনি এতদিন ধরে এই এলাকায় যত দুর্নীতি করেছেন উনি৷ যত মানুষের উপর অত্যাচার করেছে৷ সেই ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ করছে মানুষ৷’’ প্রতিদ্বন্দ্বীর বিরুদ্ধে এলাকায় সন্ত্রাস ছড়ানোর অভিযোগ করেছেন ঘাটালের তৃণমূল প্রার্থী দীপক অধিকারী (দেব)৷

[ আরও পড়ুন: ধস্তাধস্তিতে উপড়ে গেল পায়ের নখ, কেশপুরে আক্রান্ত ভারতী ঘোষ ]

এদিন ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ পেয়ে দোগাছিয়ার একটি বুথে যান ভারতী ঘোষ৷ সেখান পৌঁছতেই তাঁর গাড়ি লক্ষ্য করে ইট ছোঁড়া হয় বলে অভিযোগ৷ ইটবৃষ্টির অভিযোগ ওঠে শাসকদলের সমর্থকদের বিরুদ্ধে৷ উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকার পরিস্থিতি৷ ইটের আঘাতে মাথা ফাটে ভারতী ঘোষের এক নিরাপত্তারক্ষীর৷ ভাঙা পড়ে বেশ কিছু সংবাদমাধ্যমের গাড়ি৷ ভাঙা হয় ভারতী ঘোষের গাড়িও৷ স্থানীয় সূত্রে খবর, পরিস্থিতি সামাল দিতে শূন্যে গুলি চালায় ভারতী ঘোষের দেহরক্ষী৷ গুলির আঘাতে গুরুতর জখম হয়েছেন বখতিয়ার খান নামে এক ব্যক্তি৷ এলাকার পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বিশাল পুলিশ বাহিনী৷ বিক্ষুব্ধ জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে লাঠিচার্জ করে কেন্দ্রীয় বাহিনী৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement