৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

তৃণমূলকে ঠেকাতে বঁটি হাতে নেওয়ার বার্তা বিজেপি মহিলা কর্মীদের, বিতর্কে সৌমিত্র খাঁ

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: March 25, 2019 2:01 pm|    Updated: April 17, 2019 6:23 pm

An Images

স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান :  বিজেপির মহিলা মোর্চার সম্মেলনে গিয়ে দলীয় কর্মীদের অস্ত্র হাতে তুলে নেওয়ার নির্দেশ দিয়ে বিতর্কে জড়ালেন বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁ। একইসঙ্গে তৃণমূলের তীব্র সমালোচনা করেছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: তৃণমূল কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ, প্রতিবাদে রেল অবরোধ বিজেপির]

রবিবার বর্ধমানের উৎসব ময়দানে রাঢ়বঙ্গের সাতটি সাংগঠনিক জেলার  বিজেপির মহিলা সংগঠনের সম্মেলন ছিল। সেখানেই বক্তা হিসেবে ছিলেন প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। সম্প্রতি যিনি বিজেপিতে যোগ দিয়ে ভোটে লড়ছেন৷ মঞ্চে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, “গ্রামের মহিলাদের বলব, আপনারা বঁটি, খুন্তি নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকুন। এই ভোটে জবাব দিতেই হবে। তৃণমূলের গুণ্ডাবাহিনী যদি আসে, বঁটি হাতে নিয়ে লড়াইয়ে নামতে হবে। কোনওমতে তাদের রেয়াত করা হবে না।” এইভাবেই বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁ তৃণমূল নেতা কর্মীদের আক্রমণ করেন।

তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে কার্যত ক্ষোভ উগরে দেন তিনি। গত পঞ্চায়েত ভোটের প্রসঙ্গ টেনে সভামঞ্চে তিনি বলেন, “মানুষকে ভোট দিতে দেওয়া হয়নি। এবার তার জবাব দিতে হবে।” রাজ্যের শাসকদলকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে তিনি বলেছেন, “ক্ষমতা থাকলে বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রে আমাকে হারিয়ে দেখাক তৃণমূল।” এদিন অনুষ্ঠান মঞ্চে ছিলেন বর্ধমান সাংগঠনিক জেলা সভাপতি সন্দীপ নন্দী, মহিলা মোর্চার জেলা সভানেত্রী দেবযানী গড়াই-সহ জেলা বিজেপির অন্যান্য মহিলা নেতৃবৃন্দ। বক্তারা প্রত্যেকেই রাজ্য সরকারের কড়া সমালোচনা করেন।

[আরও পড়ুন: বিজেপিকে ভোট দিলে কন্যাশ্রী থেকে বাদ, তৃণমূল নেতার নিদানে বিতর্ক]

এদিকে, হাতে অস্ত্র তুলে নেওয়া নিয়ে সৌমিত্র খাঁ-এর নিদান প্রসঙ্গে জেলা তৃণমূল সভাপতি স্বপন দেবনাথের দাবি, ‘এই কথার মধ্যেই স্পষ্ট বিজেপি হিংসার রাজনীতিতে বিশ্বাস করে। তাই তাঁদের নেতার মুখে এমন কথা শোনা যাচ্ছে। কিন্তু তৃণমূল হিংসায় বিশ্বাস করে না।’ তৃণমূল সূত্রে খবর, রবিবারের সভায় সৌমিত্র খাঁ-এর মন্তব্য তাঁরা খতিয়ে দেখছেন। ভোটবাক্সেই মানুষ তার জবাব দেবেন বলে আত্মবিশ্বাসী তৃণমূল নেতৃত্ব।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement