BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বিজেপি কর্মীকে বিবস্ত্র করে মারধরের অভিযোগ, কাঠগড়ায় তৃণমূল

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: June 1, 2019 7:53 pm|    Updated: June 1, 2019 7:53 pm

BJP worker beaten up by TMC goons in canning area.

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিজেপির মহিলা কর্মীকে বিবস্ত্র করে মারধরের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিংয়ে। অভিযোগ, আক্রান্তদের পুকুরে বিষ মিশিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। যদিও বিজেপির অভিযোগ অস্বীকার করেছে শাসকদলের নেতা-কর্মীরা। 

[আরও পড়ুন: মহিলাদের সামনে রেখে পুলিশ প্রতিরোধ, তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ খেজুরিতে]

ঘটনার সূত্রপাত ২২ মে। অভিযোগ, ওই দিন ক্যানিংয়ের পাঙাশখালির বাসিন্দা ওই মহিলা বিজেপি কর্মীর বাড়িতে চড়াও হয় তৃণমূল কর্মীরা। ভাঙচুর চালানো হয় তাঁর বাড়িতে। ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে ক্যানিং থানায় অভিযোগ দায়ের করে আক্রান্ত বিজেপি কর্মী। অভিযোগ দায়েরের বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই, অভিযোগ তুলে নেওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করতে থাকে তৃণমূল। তাতে কাজ না হওয়ায় বাড়তে থাকে অত্যাচারের পরিমান। অভিযোগ, রোষের জেরে ওই মহিলার বাড়ির পুকুরে বিষও মিশিয়ে দেয় অভিযুক্তরা। এরপর শুক্রবার রাতে ওই মহিলার বাড়িতে চড়াও হন তৃণমূলের মহিলা বাহিনী। অভিযোগ, নির্যাতিতা মহিলার স্বামীকে আটকে রেখে তাঁর উপর অত্যাচার চালায় তৃণমূল কর্মীরা। এমনকী বিবস্ত্র করে মারধর করা হয় তাঁকে। লুটপাঠ চালানো হয় তাঁর বাড়িতে। এরপর গুরুতর আহত অবস্থায় ওই মহিলাকে উদ্ধার করে ক্যানিং হাসপাতালে ভরতি করা হয়। পরে তাঁকে কলকাতার হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ধারে বিড়ি দিতে নারাজ, ব্যবসায়ীকে পুড়িয়ে মারল প্রতিবেশী!]

যদিও বিজেপির অভিযোগ অস্বীকার করেছে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। তাঁদের অভিযোগ, আক্রান্ত বিজেপি কর্মী দেহ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। বিষয়টি জানতে পেরেই তৃণমূলের তরফে এর প্রতিবাদ করা হয়। সেই কারণেই তৃণমূলের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে। আদৌ ঘটনার সতত্যা কতটা তা জানতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। তবে এই প্রথম নয়, ভোটপর্বে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অশান্তি খবর প্রকাশ্যে এসছে। কোথাও শাসকদলের হাতে আক্রান্ত হয়েছে বিজেপি। কোথাও আবার বিজেপির হাতে আক্রান্ত হয়েছেন শাসকদলের কর্মীরা। একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ক্যানিংয়ে।      

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে